শিক্ষার্থীদের কোমরে দড়ি দিয়ে রিমান্ডে নেয়া জাতির জন্য লজ্জার : রিজভী

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৪:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

রুহুল কবির রিজভী
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ‍রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের কোমরে দড়ি দিয়ে রিমান্ডে নেয়া জাতির জন্য লজ্জার বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বুধবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, ২২ শিক্ষার্থীকে কোমরে দড়ি লাগিয়ে রিমান্ডে নেয়া হচ্ছে। এ যেন গোটা ছাত্রসমাজের কোমরে দড়ি বেঁধে টেনে নেয়া হচ্ছে। এটি জাতির জন্য শুধু লজ্জার নয়, এ দৃশ্য দেখে মানুষ ধিক্কার জানাচ্ছে।

‘সরকার কতটা নিষ্ঠুর-নির্মম হতে পারে যে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের ন্যায্য আন্দোলনের দাবি দমন করতে তাদের গ্রেফতার করে পায়ে ডাণ্ডাবেড়ি ও কোমরে দড়ি দিয়ে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে। অবৈধ সরকারকে টিকিয়ে রাখতে কতটা নির্মমতার পথ বেছে নিতে পারে, এটি তার একটি নিকৃষ্ট উদাহরণ।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, শিক্ষার্থীরা তো কোনো অন্যায় করেনি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে। এমন ন্যক্কারজনক দৃশ্যের নিন্দা জানানোর ভাষা আমার নেই। অবিলম্বে তাদের রিমান্ড বাতিল করে মুক্তি দিতে হবে। গতকাল মঙ্গলবারও চলমান ছাত্র আন্দোলনে যোগ দেয়ার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ বের করে দিয়েছে বলে জানান তিনি।

ছাত্রলীগকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-ফ্যাক্টো কর্তৃপক্ষ মন্তব্য করে রিজভী বলেন, তাদের কথায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ওঠেবসে। সে জন্যই ছাত্রলীগের হুকুমেই তামিল করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ছাত্রলীগের কারণেই সেখানে সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের কোনো নিরাপত্তা নেই।

‘তবে সর্বব্যাপী নিপীড়নের বিরুদ্ধে ছাত্ররা প্রতিরোধ গড়ে তুলছে। তাদের দমিয়ে রাখা যাবে না। ন্যায্য দাবির আন্দোলনে তারা বিজযী হবেই,’ যোগ করেন তিনি।

বিএনপি নেতা বলেন, চলমান ছাত্র আন্দোলন সরকারি সহিংসতার ছোবলে রক্তাক্ত। শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবি মেনে না নিয়ে এখন অবলম্বন করা হয়েছে নির্যাতনের পথ। দেখানো হচ্ছে নানা ধরনের নাটক ও প্রহসন। আন্দোলন শুরু হওয়ার দুদিন পর ওবায়দুল কাদের সাহেব বললেন, এবার মাঠে নামবে ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগকে তো মাঠে নামানো হলো কী কারণে, তার নমুনা তো সারা দেশবাসী দেখল। নিরস্ত্র শিক্ষার্থীদের সশস্ত্র হামলা করতে ও সাংবাদিকদের ওপর হামলা করতেই তাদের নামনো হয়েছিল। রক্তাক্ত শরীরে ভয়ার্ত আর্তনাদে ছোটাছুটি করতে দেখা গেছে কোমলমতি শিক্ষার্থী আর সাংবাদিকদের।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter