দুই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন বাতিলে চেম্বার আদালতে আবেদন

প্রকাশ : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:২১ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি

ঢাকা ও নড়াইলে করা মানহানির পৃথক দুই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দিয়ে হাইকোর্টের দেয়ার আদেশের বিরুদ্ধে চেম্বার আদালতে আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।  

রোববার বিকালে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয় বলে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এম এ কামরুল হাসান খান (আসলাম) যুগান্তরকে জানান।  

তবে কবে নাগাদ শুনানি হতে পারে তা তিনি নিশ্চিত করে বলতে পারেননি। 

উল্লেখ্য, অবকাশকালীন ছুটি চলাকালীন আগামী ৩০ আগস্ট, ৬, ৯, ১৭ ও ২৭ সেপ্টেম্বর চেম্বার আদালতে বিচারকার্যের জন্য দিন ধার্য আছে। 

গত ১৩ আগস্ট স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে নড়াইলে করা মানহানি মামলায় খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দেন হাইকোর্ট।  

বিচারপতি মুহাম্মদ আবদুল হাফিজ ও বিচারপতি কাশেফা হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। 

এ মামলায় গত ৫ আগস্ট নড়াইলের জেলা ও দায়রা জজ খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছিলেন। পরে জামিনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। 

এদিকে মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান ও শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দেয়ার মামলায় গত ১৪ আগস্ট খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের জামিন দেন হাইকোর্টের একই বেঞ্চ। 

২০১৬ সালের ৫ জানুয়ারি ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (সিএমএম) মামলাটি করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের সদস্য ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান বলেন, “ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত গত ৭ অগাস্ট এ মামলায় জামিন নামঞ্জুর করলে ১৩ আগস্ট হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা হয়। শুনানি নিয়ে পরদিন ছয় মাসের জামিন দেন হাইকোর্ট। এর আগে বিচারিক আদালত গত ৭ অগাস্ট খালেদা জিয়ার আবেদন নামঞ্জুর করে আদেশে বলেছিল, আসামির বিরুদ্ধে  গ্রেফতারি পরোয়ানা পেন্ডিং আছে। তিনি এখনও এ মামলায় গ্রেফতার হননি। এ অবস্থায় আসামিপক্ষের জামিন শুনানির আবেদনটি রক্ষণীয় নয় বিধায় নামঞ্জুর করা হল।”

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ের পর গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে আছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। ওই মামলায় তিনি জামিন পেলেও অন্য মামলায় গ্রেফতার থাকায় তিনি মুক্তি পাচ্ছেন না।