জাতীয় পার্টির যৌথসভা

৩০০ আসনেই নির্বাচন করার প্রস্তুতি জাতীয় পার্টির

প্রকাশ : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:১৯ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

জাতীয় পার্টির যৌথসভা। ছবি-যুগান্তর

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম এবং সংসদ সদস্যদের যৌথসভায় এখন থেকেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে ৩০০ আসনেই নির্বাচন করার প্রস্তুতি নেয়ারও সিদ্ধান্ত হয়েছে। 

সভায় বলা হয়েছে, নির্বাচনে কোনো দল অংশগ্রহণ করুক বা না করুক সে দিকে জাতীয় পার্টি ফিরে তাকাবে না। তবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের নিশ্চয়তা থাকতে হবে। 

সভায় বলা হয়- জাতীয় পার্টি অন্য কোনো দলের ক্ষমতায় যাওয়ার সিঁড়ি হিসেবে আর ব্যবহৃত হবে না। আগামী নির্বাচনের মাধ্যমে জাতীয় পার্টি নিজেরাই ক্ষমতায় যাওয়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাবে। তার জন্য সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়। 

সভায় যেসব জেলা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে সেখানে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যেই সম্মেলন সমাপ্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। 

সভায় আরও বলা হয়, নির্বাচনের জন্য উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায় কমিটি গঠন বাদেও ভোটকেন্দ্রভিত্তিক কমিটিও গঠন করতে হবে। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে জাতীয় পার্টির বর্ধিত সভায় পার্টির কর্মসূচি অবহিত করা হবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। 

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয়ের মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সভাপতিত্বে প্রেসিডিয়াম এবং সংসদ সদস্যদের এই যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। 

সভার শুরুতে চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সাইফুল্লাহ আল মুনিরের উপস্থাপনায় “পল্লীবন্ধুর হাত ধরে আর একবার” শিরোনামে নির্বাচনে জাতীয় পার্টির করণীয় ও কর্মকৌশল সম্পর্কিত তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। 

সভায় উপস্থিত ছিলেন- পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদ এমপি, কো-চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের, মহাসচিব-এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য- ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, এমএ সাত্তার, কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি, অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, মো. হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া টিপু, আলহাজ সাহিদুর রহমান টেপা, অ্যাডভোকেট শেখ মুহম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ফখরুল ইমাম এমপি, মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, নুর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী এমপি, অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি।

এছাড়াও সৈয়দ মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান, মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, হাবিবুর রহমান, সুনীল শুভরায়, এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, মো. আজম খান, মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, সোলায়মান আলম শেঠ, আতিকুর রহমান আতিক, নাসরিন জাহান রতনা এমপি, আব্দুর রশীদ সরকার, মেজর মো. খালেদ আখতার (অব.), মুজিবুর রহমান সেন্টু, আলহাজ সফিকুল ইসলাম সেন্টু, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি উপস্থিত ছিলেন। 


যৌথসভায় অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপিসহ অন্যান্যরা

সংসদ সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ এমপি, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা এমপি, একেএম মোস্তাফিজুর রহমান এমপি, অধ্যাপক নুরুল ইসলাম মিলন এমপি, মো. নোমান মিয়া এমপি, আলহাজ শওকত চৌধুরী এমপি, নুরুল ইসলাম ওমর এমপি, সালাউদ্দিন মুক্তি এমপি, ইয়াইয়াহ চৌধুরী এমপি, মুনিম চৌধুরী বাবু এমপি, পীর ফজলুর রহমান এমপি, অ্যাডভোকেট মো. আলতাফ আলী এমপি, মো. আমির হোসেন ভূঁইয়া এমপি, হাজী মো. ইলিয়াস এমপি, সেলিম ওসমান এমপি, মো. রুস্তম আলী ফরাজী এমপি, অধ্যাপক ডা. মো. আক্কাছ আলী সরকার এমপি, মেহজাবিন মোর্শেদ এমপি, মেরিনা রহমান এমপি, খোরশেদ আরা হক এমপি, সাহানারা বেগম এমপি উপস্থিত ছিলেন।