কারো ইচ্ছা-অনিচ্ছায় সংবিধানের কোনো পরিবর্তন হবে না: হানিফ

প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। ছবি: যুগান্তর

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি নির্বাচনে যাবে কিনা তাদের সিদ্ধান্তের ব্যাপার, গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে যে কোনো রাজনৈতিক দলের যে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার আছে। তবে কারো ইচ্ছা-অনিচ্ছায় সংবিধানের কোনো পরিবর্তন হবে না।

তিনি বলেন, আমাদের সংবিধানে যে গাইডলাইন দেয়া আছে- সেই গাইডলাইন অনুযায়ী আগামী সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সংবিধানের বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়া শহরের নিজ বাসভবনে কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে মাহবুবউল আলম হানিফ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে। বিএনপি দশম সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিয়ে যে ভুল করেছিল দ্বিতীয়বার সেই ভুলটা করবে না। বিএনপি যদি আবারো আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করে সেটা হবে বিএনপির জন্য একটি আত্মঘাতী।

বিএনপির সব দাবি অযৌক্তিক, অসাংবিধানিক ও আইনবহির্ভূত উল্লেখ করে হানিফ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একজন দণ্ডিত কয়েদি। তাকে আদালতের মাধ্যমেই মুক্তি পেতে হবে। এর বাইরে গিয়ে মুক্তি পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, সরকারের পক্ষে দণ্ডপ্রাপ্ত কোনো কয়েদিকে আইনবহির্ভূতভাবে মুক্তি দেয়ার বিধান নেই। বিএনপিও সেটা জানার পরেও বিএনপি অযৌক্তিক দাবি করে যাচ্ছে।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বিএনপি নিজেরাও জানেন তাদের নেত্রী এতিমদের টাকা আত্মসাৎ করেছিলেন, দুর্নীতি করেছিলেন। নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারবে না বিধায় তারা আদালতকে বাদ দিয়ে এখন অযৌক্তিক রায়ে যাওয়ার চিন্তাভাবনা করছেন।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী আসলে নিজে অপরাধ করেছেন বলেই আদালতে যেতে ভয় পান এবং আদালতকে ভয় পান বলেই দলটির নেতারা আদালতে যেতে চান না। আমরা বারবার বলে এসেছি বেগম খালেদা জিয়ার আদালতের বাইরে মুক্তি হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগ, শহর আওয়ামী লীগ, ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।