সরকার বিলুপ্ত করার প্রশ্নই উঠে না: তোফায়েল

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

সরকার বিলুপ্ত করার প্রশ্নই উঠে না: তোফায়েল
সম্প্রীতি নৌবিহারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। ছবি: যুগান্তর

সংবিধানের বাইরে গিয়ে নির্বাচিত সরকার বিলুপ্ত করার কোনো প্রশ্নই উঠে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

মন্ত্রী বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কেউ বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। নির্বাচিত ক্ষমতাসীন সরকার ক্ষমতায় থাকবে। নির্বাচন কমিশন থেকে নির্ধারিত তারিখেই নির্বাচন হবে। কেউ এখানে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করলে রুখে দেয়া হবে।

শনিবার রাজধনীর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে চাঁদপুরগামী এক সম্প্রীতি নৌবিহারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকী এবং বিশ্ব শান্তি দিবস উপলক্ষে আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সৃষ্টির মাধ্যমে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যকে সামনে রেখে ইউনাইটেড রিলিজিয়ন ইনিশিয়েটিভ বাংলাদেশের বিদ্যাসাগর সোসাইটি সিসি ও ইন্টার রিলিজিয়ন হারমোনি সোসাইটি সিসির যৌথ উদ্যোগে বুড়িগঙ্গা থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত এই নৌবিহারের আয়োজন করা হয়।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তোফায়েল আহমেদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর চিন্তা চেতনা এবং দর্শন ছিল অসাম্প্রদায়িক। বিশ্ব শান্তির আহ্বান ছিল তার কণ্ঠে সদা উচ্চকিত। সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র পাকিস্তান ভেঙে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র গঠনে ২৩ বছর তার ত্যাগতিতিক্ষা এবং ১২ বছর কারাবাস করে ফাঁসির মঞ্চে গিয়েও আত্মসমর্পণ না করে তিনি প্রমাণ করেছিলেন, তিনি ছিলেন সারা বিশ্বের অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসীদের মধ্যে অন্যতম। শোষণ-নিপীরণের বিরুদ্ধে এবং সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র পাকিস্তানের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা সংগ্রামে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে এনে দিয়েছিলেন মহান স্বাধীনতা।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দুটি স্বপ্ন ছিল- বাংলাদেশকে স্বাধীন করা এবং বাংলাদেশকে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলায় রূপান্তরিত করা। আমাদের তিনি স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তার প্রথম স্বপ্ন তিনি পূরণ করেছেন। আরেকটি স্বপ্ন যখন বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে চলেছিলেন, তখনই বুলেটের আঘাতে সপরিবারে তাকে হত্যা করা হয়।

তিনি বলেন, জাতির পিতাকে হারানোর দুঃখের মধ্যে ’৮১-এর ফেব্রুয়ারি মাসে আওয়ামী লীগের সম্মেলনের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ কন্যার হাতে আমরা যে পতাকা তুলে দিয়েছিলাম, সেই পতাকা হাতে নিয়ে নিষ্ঠা, সততা ও দক্ষতার সঙ্গে আজকে তিনি বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। প্রতিপক্ষের শত ষড়যন্ত্র সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে চলেছে। অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করে আর্থসামাজিক প্রতিটি সূচক আজ ইতিবাচক অগ্রগতির দিকে ধাবমান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও ভারতের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সিনিয়র সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিদের অংশগ্রহণে এমভি বাঙালি জাহাজেই ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন: আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির মাধ্যমে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা’ শীর্ষক আলোচনা সভা।

এর আগে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ইউনাইটেড রিলিজিয়ন ইনিশিয়েটিভের এশিয়ান ট্রাস্ট্রি রেভাঃ কল্যাণ কুমার কিস্কু এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইন্ডিয়া ন্যাশনাল কো-অর্ডিনেটর মি. বিশ্বদেব চক্রবর্তী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের সংবাদ উপস্থাপিকা শ্রীমতি প্রীতিলতা পোদ্দার।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×