‘পঁচাত্তর পরবর্তী মহত সব অর্জন শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই’
jugantor
‘পঁচাত্তর পরবর্তী মহত সব অর্জন শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই’

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৪০:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ বলেছেন, ১৯৭৫ পরবর্তী বাঙালি জাতির যা কিছু মহত অর্জন- তা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই অর্জিত হয়েছে।

শনিবার বিকালে টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের বৃক্ষরোপণ ও চারা বিতরণ কর্মসূচি, আলোচনা ও বর্ধিত সভায় উদ্বোধকের বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, তৃণমূলে কৃষক লীগের সংগঠিত করার মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন স্বার্থক হবে। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার জীবনের ওপর বার বার ঝুঁকি এসেছে। অন্তত ২০ বার তাকে হত্যার অপচেষ্টা করা হয়েছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়েও তিনি অসীম সাহসে তার লক্ষ্য অর্জনে থেকেছেন অবিচল।

কৃষক লীগের সভাপতি আরও বলেন, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নব পর্যায়ের বাংলাদেশের ইতিহাসের নির্মাতা। হিমাদ্রী শিখর সফলতার মূর্ত-স্মারক, উন্নয়নের কাণ্ডারি। উন্নত সমৃদ্ধ ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার। আত্মশক্তি-সমৃদ্ধ সত্য-সাধক। প্রগতি-উন্নয়ন শান্তি ও সমৃদ্ধির সুনির্মল-মোহনা। এক কথায় বলতে গেলে সমুদ্র সমান অর্জনে সমৃদ্ধ শেখ হাসিনার কর্মময় জীবন।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক, প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উম্মে কুলছুম স্মৃতি, বিশেষ অতিথি জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় কৃষলীগ নেতা মো. আবুল হোসেন, জামিলুর রহমান মিরন, রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সামস উদ্দিন।

‘পঁচাত্তর পরবর্তী মহত সব অর্জন শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই’

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ বলেছেন, ১৯৭৫ পরবর্তী বাঙালি জাতির যা কিছু মহত অর্জন- তা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই অর্জিত হয়েছে।

শনিবার বিকালে টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের বৃক্ষরোপণ ও চারা বিতরণ কর্মসূচি, আলোচনা ও বর্ধিত সভায় উদ্বোধকের বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। 

তিনি বলেন, তৃণমূলে কৃষক লীগের সংগঠিত করার মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন স্বার্থক হবে। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার জীবনের ওপর বার বার ঝুঁকি এসেছে। অন্তত ২০ বার তাকে হত্যার অপচেষ্টা করা হয়েছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়েও তিনি অসীম সাহসে তার লক্ষ্য অর্জনে থেকেছেন অবিচল। 

কৃষক লীগের সভাপতি আরও বলেন, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নব পর্যায়ের বাংলাদেশের ইতিহাসের নির্মাতা। হিমাদ্রী শিখর সফলতার মূর্ত-স্মারক, উন্নয়নের কাণ্ডারি। উন্নত সমৃদ্ধ ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার। আত্মশক্তি-সমৃদ্ধ সত্য-সাধক। প্রগতি-উন্নয়ন শান্তি ও সমৃদ্ধির সুনির্মল-মোহনা। এক কথায় বলতে গেলে সমুদ্র সমান অর্জনে সমৃদ্ধ শেখ হাসিনার কর্মময় জীবন।

টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক, প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উম্মে কুলছুম স্মৃতি, বিশেষ অতিথি জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় কৃষলীগ নেতা মো. আবুল হোসেন, জামিলুর রহমান মিরন, রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন টাঙ্গাইল জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সামস উদ্দিন।

 
আরও খবর