বিতর্কিত ব্যক্তিকে মনোনয়ন না দিতে আ.লীগ কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন
jugantor
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন
বিতর্কিত ব্যক্তিকে মনোনয়ন না দিতে আ.লীগ কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫৬:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিতর্কিত ব্যক্তিকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করা হয়েছে।

ফেনীর পশুরামের মির্জানগর ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে ইউনিয়নের শতাধিক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। এ সময় ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টোকে ‘জামায়াত-শিবিরের পৃষ্ঠপোষক’ আখ্যায়িত করে তাকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

এ সময় বক্তব্য দেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী আকবর ভুইয়া, উপজেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসেম চৌধুরী, জেলা যুবলীগের সদস্য ফখরুল ইসলাম ফারুক, ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক নেতা আবু ইউসুফ, সাবেক ছাত্রনেতা নুরুল আলম।

আবুল হাসেম চৌধুরী বলেন, বর্তমান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ২০০৩ সালে জামায়াতের সমর্থন নিয়ে মির্জানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০১১ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ‘সরকারি দলে’ প্রবেশ করেন। এরপর জেলা-উপজেলার কিছু নেতাকে হাত করে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই ‘আওয়ামী লীগ’ নিধনে নামেন। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের নেতাকর্মীর ওপর নির্যাতন করেন।

ফখরুল ইসলাম ফারুক বলেন, বিতর্কিত ব্যক্তি নুরুজ্জামান ভুট্টো জনপ্রতিনিধি হয়েও সে ঠিকাদারের ভূমিকায় ১০ শতাংশ বাণিজ্য করে সরকারি কাজে ব্যাপক অনিয়ম করেছে। ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতার শাহাদতবার্ষিকীতে উপজেলা জামায়াতের আমির নূর মোহাম্মদ ও ইউনিয়ন জামায়াতের আমির আনোয়ার শাহকে অতিথি করে অনুষ্ঠান করে। এতে ক্ষুব্ধ হয় স্থানীয় আওয়ামী লীগ। পরে উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে তাকে শোকজ করা হয়। এমন বিতর্কিত ব্যক্তিকে নৌকা দেওয়া হলে আওয়ামী লীগ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

বিতর্কিত ব্যক্তিকে মনোনয়ন না দিতে আ.লীগ কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিতর্কিত ব্যক্তিকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবিতে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করা হয়েছে।

ফেনীর পশুরামের মির্জানগর ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে ইউনিয়নের শতাধিক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। এ সময় ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টোকে ‘জামায়াত-শিবিরের পৃষ্ঠপোষক’ আখ্যায়িত করে তাকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

এ সময় বক্তব্য দেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলী আকবর ভুইয়া, উপজেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসেম চৌধুরী, জেলা যুবলীগের সদস্য ফখরুল ইসলাম ফারুক, ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক নেতা আবু ইউসুফ, সাবেক ছাত্রনেতা নুরুল আলম।

আবুল হাসেম চৌধুরী বলেন, বর্তমান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ২০০৩ সালে জামায়াতের সমর্থন নিয়ে মির্জানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০১১ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ‘সরকারি দলে’ প্রবেশ করেন। এরপর জেলা-উপজেলার কিছু নেতাকে হাত করে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই ‘আওয়ামী লীগ’ নিধনে নামেন। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের নেতাকর্মীর ওপর নির্যাতন করেন।

ফখরুল ইসলাম ফারুক বলেন, বিতর্কিত ব্যক্তি নুরুজ্জামান ভুট্টো জনপ্রতিনিধি হয়েও সে ঠিকাদারের ভূমিকায় ১০ শতাংশ বাণিজ্য করে সরকারি কাজে ব্যাপক অনিয়ম করেছে। ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতার শাহাদতবার্ষিকীতে উপজেলা জামায়াতের আমির নূর মোহাম্মদ ও ইউনিয়ন জামায়াতের আমির আনোয়ার শাহকে অতিথি করে অনুষ্ঠান করে। এতে ক্ষুব্ধ হয় স্থানীয় আওয়ামী লীগ। পরে উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে তাকে শোকজ করা হয়। এমন বিতর্কিত ব্যক্তিকে নৌকা দেওয়া হলে আওয়ামী লীগ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর