করোনা মোকাবেলায় ঢাবি কোনো ভূমিকা রাখতে পারেনি: ছাত্রদল

  ঢাবি প্রতিনিধি ০৬ জুন ২০২০, ২১:২৬:০২ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস সঙ্কট মোকাবেলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কোনো ভূমিকা রাখতে পারেনি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ঢাবি শাখা ছাত্রদল। শনিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব সংগঠনের পক্ষ থেকে এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, সদস্য সচিব মো. আমান উল্লাহ আমান উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদ সম্মলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, আমরা মনে করি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪২ হাজার শিক্ষার্থীর অধিকাংশই আমাদের মতো মধ্যবিত্ত পরিবারের। অনেক শিক্ষার্থীই টিউশনি করে সৎ পথে জীবনযাপন করে থাকেন। বিগত প্রায় আড়াই মাস যাবত করোনা সঙ্কট চলছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আজঅবধি করোনা সঙ্কট মোকাবেলায় কোনো ভূমিকা পালন করতে পারেনি। উপরন্তু তারা প্রধানমন্ত্রীর যে ত্রাণ ফান্ড রয়েছে সেখানে ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। এই অনুদান দেয়া কোনোভাবেই ঠিক কাজ হয়নি। আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।

একই সঙ্গে গত ৫ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রে চালু হওয়া করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা কেন্দ্র গত ৩১ মে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে তা চালুর দাবি জানিয়েছেন রাকিব।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য সচিব মো. আমান উল্লাহ আমান।

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে গত ২৯ মার্চ থেকে ৬ জুন পর্যন্ত ক্যাম্পাস ও তার আশপাশে ত্রাণ বিতরণ এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে আর্থিক সহযোগিতার কার্যক্রম তুলে ধরে আমান বলেন, এক হাজার অসহায় ও দুস্থ মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। তিন শতাধিক সাধারণ শিক্ষার্থীদের আমরা আর্থিক সহযোগিতাও করেছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ভেতর দিয়ে মেট্রো রেলপথ ও স্টেশন স্থাপন বাতিলের দাবি পুনর্বিবেচনা চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক বলেন, আমরা ক্যাম্পাসের ভেতর দিয়ে মেট্রো রেলপথ ও স্টেশন নেয়ার বিষয়টি ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করি। যেভাবে এই মেট্রোরেল পথ নেয়ার জন্য ইতিমধ্যে টিএসসি থেকে দোয়েল চত্বর পর্যন্ত অনেক পুরানো শতবর্ষের গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এটা সাধারণ শিক্ষার্থীদের আবেগ-অনুভূতিতে আঘাত করেছে।আমরা আবারও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানাচ্ছি বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার জন্য। আর যেন একটি গাছও কাটা না হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনলাইন ক্লাস চালুর পরিকল্পনা প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, অনলাইন ক্লাসের বিষয়ে ভিসি স্যারের নেতৃত্বে একটি কমিটি হয়েছে। দ্রুত তারা একটা সিদ্ধান্ত নেবেন। আমাদের বক্তব্য হচ্ছে, অনলাইন ক্লাস যদি চালু করা হয় সেজন্য অবকাঠামো ঠিক করে যেন তা চালু করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য যেন অনুদানের ব্যবস্থা করা হয়। বিশেষ করে এনড্রয়েড মোবাইল সেট কেনা সেটা যেন দেখা হয়। সব শিক্ষার্থীদের তো প্রয়োজন নেই, যাদের প্রয়োজন তারা যেন এই সহযোগিতা নিয়ে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত