আলালের ভিডিও ভাইরাল, শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের
jugantor
আলালের ভিডিও ভাইরাল, শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:০৬:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

এবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের বক্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাহবাগ থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেন ঢাবির পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগে শিক্ষার্থী নূরউদ্দীন আহমেদ। তিনি শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে থাকেন।

ঢাবি শিক্ষার্থী নূরউদ্দীন তার অভিযোগে লেখেন, গত ৬ ডিসেম্বর রাত ১২টায় শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের ২৩৯নং রুমে বসে একটি লিঙ্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে আলালের ‘অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ’ বক্তব্যের ভিডিও দেখতে পাই। এটি সরকার ও দেশের জনগণের জন্য হেয়প্রতিপন্ন ও মানহানিকর।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, এই ঘটনার বিষয়ে সহপাঠীদের সঙ্গে আলোচনা করে অভিযোগ করতে কিছুটা দেরি হয়েছে।

শাহবাগ থানার ওসি মওদুদ হাওলাদার বলেন, অভিযোগটি আমরা জিডি হিসেবে গ্রহণ করেছি। এখন সাইবার ক্রাইম ইউনিটে পাঠাব এটি পাঠানো হবে।

আলালের ভিডিও ভাইরাল, শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের বক্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাহবাগ থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেন ঢাবির পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগে শিক্ষার্থী নূরউদ্দীন আহমেদ। তিনি শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে থাকেন।

ঢাবি শিক্ষার্থী নূরউদ্দীন তার অভিযোগে লেখেন, গত ৬ ডিসেম্বর রাত ১২টায় শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের ২৩৯নং রুমে বসে একটি লিঙ্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে আলালের ‘অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ’ বক্তব্যের ভিডিও দেখতে পাই। এটি সরকার ও দেশের জনগণের জন্য হেয়প্রতিপন্ন ও মানহানিকর।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, এই ঘটনার বিষয়ে সহপাঠীদের সঙ্গে আলোচনা করে অভিযোগ করতে কিছুটা দেরি হয়েছে।

শাহবাগ থানার ওসি মওদুদ হাওলাদার বলেন, অভিযোগটি আমরা জিডি হিসেবে গ্রহণ করেছি। এখন সাইবার ক্রাইম ইউনিটে পাঠাব এটি পাঠানো হবে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন