বিএনপির সমাবেশের ওপরে একাধিক ড্রোন, যা বললেন ফখরুল
jugantor
বিএনপির সমাবেশের ওপরে একাধিক ড্রোন, যা বললেন ফখরুল

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১১ আগস্ট ২০২২, ২২:৩৩:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সড়কে সমাবেশ করেছে বিএনপি।এই সমাবেশের ওপরে একাধিক ড্রোন উড়তে দেখা গেছে। এতে অনেকের মাঝে সন্দেহ আর আতঙ্ক ভর করে। ড্রোন উড়তে দেখে অনেকেই সমাবেশস্থল ছেড়ে যান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সমাবেশের ঠিক ওপরে পল্টন পলওয়েল ও চায়না টাউন মার্কেট বরাবর কয়েকটি ড্রোন উড়তে দেখা যায়। এগুলো নির্দিষ্ট স্থানে স্থির হয়ে আছে। তবে এসব ড্রোনে ক্যামেরা ছিল কি না- তা নিশ্চিত করতে পারেননি তারা।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির যৌথ উদ্যোগে ‘জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্যুতের লোডশেডিং, গণপরিবহণের ভাড়া বৃদ্ধি, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং ভোলায় পুলিশের গুলিতে নুরে আলম ও আব্দুর রহিমের হত্যার প্রতিবাদে’ এই সমাবেশ হয়।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর ঢাকা মহানগরে এই প্রথম বড় সমাবেশ করেছে বিএনপি। এতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, ঢাকা জেলা, গাজীপুর মহানগর ও জেলা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগরসহ আরও কয়েকটি জেলা থেকে নেতাকর্মীরা যোগ দেন।

সমাবেশের জন্য দলীয় কার্যালয়ের সামনে অস্থায়ী মঞ্চ তৈরি করা হয়। সকাল থেকে বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে শুরু করেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাজারো নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হয়।

নাইটিংগেল মোড় থেকে ফকিরাপুল মোড় পর্যন্ত দুই পাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখতে জাসাসের আয়োজনে গান, দলীয় সংগীত, কবিতা আবৃত্তির আয়োজন করা হয়। দুপুর ২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হয়।

এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে নয়াপল্টন ও এর আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়।

সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সমাবেশের আকাশে ড্রোন ওড়ানো হচ্ছে। সরকার ইরান থেকে ২১টি ড্রোন আমদানি করেছে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের মনিটরিং করতে নয়, যারা গণতন্ত্র চায়, তাদের মনিটরিং করতে এসব আনা হয়েছে।

ঢাকা বিভাগীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম গণমাধ্যমকে বলেন, সরকারের কোনো সংস্থা হয়তো আকাশে ড্রোন উড়িয়ে সমাবেশে উপস্থিতি দেখছে। কারণ সাধারণ মানুষের ড্রোন উড়ানোর অনুমতি নেই।

বিএনপির সমাবেশের ওপরে একাধিক ড্রোন, যা বললেন ফখরুল

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১১ আগস্ট ২০২২, ১০:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সড়কে সমাবেশ করেছে বিএনপি।এই সমাবেশের ওপরে একাধিক ড্রোন উড়তে দেখা গেছে। এতে অনেকের মাঝে সন্দেহ আর আতঙ্ক ভর করে। ড্রোন উড়তে দেখে অনেকেই সমাবেশস্থল ছেড়ে যান। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সমাবেশের ঠিক ওপরে পল্টন পলওয়েল ও চায়না টাউন মার্কেট বরাবর কয়েকটি ড্রোন উড়তে দেখা যায়। এগুলো নির্দিষ্ট স্থানে স্থির হয়ে আছে। তবে এসব ড্রোনে ক্যামেরা ছিল কি না- তা নিশ্চিত করতে পারেননি তারা।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির যৌথ উদ্যোগে ‘জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্যুতের লোডশেডিং, গণপরিবহণের ভাড়া বৃদ্ধি, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং ভোলায় পুলিশের গুলিতে নুরে আলম ও আব্দুর রহিমের হত্যার প্রতিবাদে’ এই সমাবেশ হয়। 

একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর ঢাকা মহানগরে এই প্রথম বড় সমাবেশ করেছে বিএনপি। এতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, ঢাকা জেলা, গাজীপুর মহানগর ও জেলা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগরসহ আরও কয়েকটি জেলা থেকে নেতাকর্মীরা যোগ দেন। 

সমাবেশের জন্য দলীয় কার্যালয়ের সামনে অস্থায়ী মঞ্চ তৈরি করা হয়। সকাল থেকে বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে শুরু করেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাজারো নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হয়। 

নাইটিংগেল মোড় থেকে ফকিরাপুল মোড় পর্যন্ত দুই পাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখতে জাসাসের আয়োজনে গান, দলীয় সংগীত, কবিতা আবৃত্তির আয়োজন করা হয়। দুপুর ২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হয়। 

এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে নয়াপল্টন ও এর আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়। 

সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সমাবেশের আকাশে ড্রোন ওড়ানো হচ্ছে।  সরকার ইরান থেকে ২১টি ড্রোন আমদানি করেছে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের মনিটরিং করতে নয়, যারা গণতন্ত্র চায়, তাদের মনিটরিং করতে এসব আনা হয়েছে। 

ঢাকা বিভাগীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম গণমাধ্যমকে বলেন, সরকারের কোনো সংস্থা হয়তো আকাশে ড্রোন উড়িয়ে সমাবেশে উপস্থিতি দেখছে। কারণ সাধারণ মানুষের ড্রোন উড়ানোর অনুমতি নেই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন