সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিতে হবে: ফখরুল
jugantor
সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিতে হবে: ফখরুল

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:৪৯:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

বর্তমান সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, শাওনের আত্মত্যাগের আমরা প্রতিদান দেব। আমরা শপথ নেব শাওন যে গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও মানুষের অধিকারের জন্য প্রাণ দিয়েছে তা আদায় করার জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধ হব। বাংলাদেশের সব মানুষ এই কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিবাদী সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবে। তবেই হবে শাওনের প্রতি সত্যিকারের শ্রদ্ধা নিবেদন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে শহীদুল ইসলাম শাওনের জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

বুধবার মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপাড়ায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়। তাদের একজন ছিলেন যুবদলের নেতা শহীদুল ইসলাম শাওন।

সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গ থেকে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সে করে শাওনের কফিন নয়াপল্টনে নিয়ে আসা হয়। দলের পক্ষ থেকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় দলীয় পতাকা দিয়ে ঢাকা তার কফিনে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান।

পরে জানাজায় অংশ নেন বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মির্জা আব্বাস, আবদুল্লাহ আল নোমান, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, রুহুল কবির রিজভী, ড. আসাদুজ্জামান রিপন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, ফজলুল হক মিলন, কামরুজ্জামান রতন, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, আজিজুল বারী হেলাল, ডা. রফিকুল ইসলাম, মীর সরফত আলী সপু, মীর আলী নেওয়াজ, প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন বকুল, মৎস্যজীবী দলের আব্দুর রহিম, যুবদলের সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মোনায়েম মুন্না, ওলামা দলের কাজী মো. সেলিম রেজাসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের কয়েক হাজার নেতাকর্মী। জানাজায় ইমামতি করেন জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা শাহ মোহাম্মদ নেছারুল হক।

জানাজা শেষে শহীদুল ইসলাম শাওনের লাশ তার নিজ এলাকা মুন্সীগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়। শাওনের কফিন নয়াপল্টনের সড়কে নেতাকর্মীরা মিছিল করে এগিয়ে দেন। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে যুবদল নেতা শহীদুল ইসলাম শাওন হত্যার প্রতিবাদে রাজধানীতে মশাল মিছিল বের করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে অংশ নেন নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীসহ দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিতে হবে: ফখরুল

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বর্তমান সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

তিনি বলেন, শাওনের আত্মত্যাগের আমরা প্রতিদান দেব। আমরা শপথ নেব শাওন যে গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও মানুষের অধিকারের জন্য প্রাণ দিয়েছে তা আদায় করার জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধ হব। বাংলাদেশের সব মানুষ এই কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিবাদী সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবে। তবেই হবে শাওনের প্রতি সত্যিকারের শ্রদ্ধা নিবেদন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে শহীদুল ইসলাম শাওনের জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন। 

বুধবার মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপাড়ায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়। তাদের একজন ছিলেন যুবদলের নেতা শহীদুল ইসলাম শাওন।

সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গ থেকে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সে করে শাওনের কফিন নয়াপল্টনে নিয়ে আসা হয়। দলের পক্ষ থেকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় দলীয় পতাকা দিয়ে ঢাকা তার কফিনে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান।

পরে জানাজায় অংশ নেন বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মির্জা আব্বাস, আবদুল্লাহ আল নোমান, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, রুহুল কবির রিজভী, ড. আসাদুজ্জামান রিপন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, ফজলুল হক মিলন, কামরুজ্জামান রতন, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, আজিজুল বারী হেলাল, ডা. রফিকুল ইসলাম, মীর সরফত আলী সপু, মীর আলী নেওয়াজ, প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন বকুল, মৎস্যজীবী দলের আব্দুর রহিম, যুবদলের সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মোনায়েম মুন্না, ওলামা দলের কাজী মো. সেলিম রেজাসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের কয়েক হাজার নেতাকর্মী। জানাজায় ইমামতি করেন জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা শাহ মোহাম্মদ নেছারুল হক।

জানাজা শেষে শহীদুল ইসলাম শাওনের লাশ তার নিজ এলাকা মুন্সীগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়। শাওনের কফিন নয়াপল্টনের সড়কে নেতাকর্মীরা মিছিল করে এগিয়ে দেন। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে যুবদল নেতা শহীদুল ইসলাম শাওন হত্যার প্রতিবাদে রাজধানীতে মশাল মিছিল বের করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে অংশ নেন নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীসহ দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন