দেশে নারীর নিরাপত্তা নেই: জিয়াউদ্দিন বাবলু
jugantor
দেশে নারীর নিরাপত্তা নেই: জিয়াউদ্দিন বাবলু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ২১:১৮:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদেরের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

তিনি বলেছেন, দেশ ও জাতির মঙ্গলের জন্য তার সুস্থতা খুবই জরুরি। দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পার্টির চেয়ারম্যান অবিরাম পরিশ্রম করছেন। তার মতো দেশপ্রেমিক নেতার সেবা দেশের মানুষের জন্য অত্যন্ত মঙ্গলজনক।

রাজধানীর কাকরাইলে শুক্রবার বাদ আসর জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। জিএম কাদেরের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয় মহিলা পার্টি। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান, সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এবং জাতীয় মহিলা পার্টির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি।

জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, দেশের মানুষ আজ করোনায় চিকিৎসা পাচ্ছে না, করোনা পরীক্ষা করতে পারছে না। স্বাস্থ্যসেবা আমাদের জন্মগত অধিকার। স্বাস্থ্যসেবা মানুষের সাংবিধানিক অধিকার। অথচ পয়সা খরচ করে করোনা টেস্ট করতে হচ্ছে- যা অনেকের পক্ষেই সম্ভব হচ্ছে না। করোনার কারণে অনেকেই বেকার হয়ে পড়েছে, জীবনযাত্রা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে তাদের। এমন বাস্তবতায় পয়সা খরচ করে দেশের অধিকাংশ মানুষ করোনার চিকিৎসা নিতে পারছে না। তাই অনেকেই বিনা চিকিৎসায় মারা গেছেন। দেশে চরম বৈষম্য বিরাজ করছে, অথচ বৈষম্যের বিরুদ্ধেই আমাদের মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল।

জাতীয় পার্টি মহাসচিব বলেন, দেশে নারীর নিরাপত্তা নেই। নারীরা সম্ভ্রম রক্ষা করতে পারছেন না। ধর্ষণ বেড়েছে লজ্জাজনক হারে। জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ধর্ষণ রোধে মৃত্যুদণ্ডের আইন করতে দাবি করেছিলেন। সরকার জাতীয় পার্টির দাবি অনুযায়ী ধর্ষণ রোধে আইন করেছে, কিন্তু ধর্ষণ কমেনি।

তিনি বলেন, দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই ধর্ষণ রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। সভ্য সমাজে ধর্ষণ কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। দেশের মানুষ পরিত্রাণ চায়, দেশের মানুষ শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা থেকে মুক্তি চায়। দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, ধর্ষণ, নির্যাতন ও নিপীড়ন মুক্ত নতুন বাংলাদেশ গড়বে।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হেসেন বাবলা এমপি পার্টির চেয়ারম্যানের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করায় জাতীয় মহিলা পার্টিকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের দেশ ও জাতির জন্য আদর্শবাদী নেতা। তাই তার রোগমুক্তি কামনায় সারা দেশে প্রতিদিনই দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

দোয়া পরিচালনা করেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় ওলামা পার্টির সভাপতি হাফেজ ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী।

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় মহিলা পার্টির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব হেনা খান পন্নি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চেয়ারম্যানের বিশেষ সহকারী মীর আবদুস সবুর আসুদ, অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভুইয়া, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা অধ্যক্ষ রওশন আরা মান্নান, জহিরুল আলম রুবেল, অ্যাডভোকেট লাকী বেগম, ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা রানী, শফিকুল ইসলাম শফিক, সালমা হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব মো. বেলাল হোসেন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, সাইফুল ইসলাম, মো. হুমায়ুন খান, সুলতান মাহমুদ, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসহাক ভুইয়া, মো. আখতার হোসেন দেওয়ান, এমএ সোবহান, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, মো. দ্বীন ইসলাম শেখ, শেখ সারোয়ার, আলমগীর হোসেন, মো. ফারুক শেঠ, আবু ওয়াহাব, অধ্যাপক নুরুল বশর সুজন, জাতীয় মহিলা পার্টির নেত্রী রিতু নুর, মিনি খান, মোমেনা বেগম, জেসমিন নুর প্রিয়াংকা, আসমা আক্তার, ফেরদৌসী বকুল, সীমানা আমির, সাদিয়া শারমিন, লুবনা আহমেদ, কেয়া মাসুদ, জোসনা আক্তার, ঢাকা জেলা মহিলা পার্টির আহ্বায়ক রেশমী হোসেন আজাদ প্রমুখ।

দেশে নারীর নিরাপত্তা নেই: জিয়াউদ্দিন বাবলু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদেরের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

তিনি বলেছেন, দেশ ও জাতির মঙ্গলের জন্য তার সুস্থতা খুবই জরুরি। দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পার্টির চেয়ারম্যান অবিরাম পরিশ্রম করছেন। তার মতো দেশপ্রেমিক নেতার সেবা দেশের মানুষের জন্য অত্যন্ত মঙ্গলজনক। 

রাজধানীর কাকরাইলে শুক্রবার বাদ আসর জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। জিএম কাদেরের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয় মহিলা পার্টি। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান, সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এবং জাতীয় মহিলা পার্টির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি।

জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, দেশের মানুষ আজ করোনায় চিকিৎসা পাচ্ছে না, করোনা পরীক্ষা করতে পারছে না। স্বাস্থ্যসেবা আমাদের জন্মগত অধিকার। স্বাস্থ্যসেবা মানুষের সাংবিধানিক অধিকার। অথচ পয়সা খরচ করে করোনা টেস্ট করতে হচ্ছে- যা অনেকের পক্ষেই সম্ভব হচ্ছে না। করোনার কারণে অনেকেই বেকার হয়ে পড়েছে, জীবনযাত্রা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে তাদের। এমন বাস্তবতায় পয়সা খরচ করে দেশের অধিকাংশ মানুষ করোনার চিকিৎসা নিতে পারছে না। তাই অনেকেই বিনা চিকিৎসায় মারা গেছেন। দেশে চরম বৈষম্য বিরাজ করছে, অথচ বৈষম্যের বিরুদ্ধেই আমাদের মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল। 

জাতীয় পার্টি মহাসচিব বলেন, দেশে নারীর নিরাপত্তা নেই। নারীরা সম্ভ্রম রক্ষা করতে পারছেন না। ধর্ষণ বেড়েছে লজ্জাজনক হারে। জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ধর্ষণ রোধে মৃত্যুদণ্ডের আইন করতে দাবি করেছিলেন। সরকার জাতীয় পার্টির দাবি অনুযায়ী ধর্ষণ রোধে আইন করেছে, কিন্তু ধর্ষণ কমেনি। 

তিনি বলেন, দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই ধর্ষণ রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। সভ্য সমাজে ধর্ষণ কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। দেশের মানুষ পরিত্রাণ চায়, দেশের মানুষ শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা থেকে মুক্তি চায়। দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, ধর্ষণ, নির্যাতন ও নিপীড়ন মুক্ত নতুন বাংলাদেশ গড়বে।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হেসেন বাবলা এমপি পার্টির চেয়ারম্যানের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করায় জাতীয় মহিলা পার্টিকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের দেশ ও জাতির জন্য আদর্শবাদী নেতা। তাই তার রোগমুক্তি কামনায় সারা দেশে প্রতিদিনই দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 

দোয়া পরিচালনা করেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় ওলামা পার্টির সভাপতি হাফেজ ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী। 

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় মহিলা পার্টির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব হেনা খান পন্নি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চেয়ারম্যানের বিশেষ সহকারী মীর আবদুস সবুর আসুদ, অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভুইয়া, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা অধ্যক্ষ রওশন আরা মান্নান, জহিরুল আলম রুবেল, অ্যাডভোকেট লাকী বেগম, ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা রানী, শফিকুল ইসলাম শফিক, সালমা হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব মো. বেলাল হোসেন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, সাইফুল ইসলাম, মো. হুমায়ুন খান, সুলতান মাহমুদ, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইসহাক ভুইয়া, মো. আখতার হোসেন দেওয়ান, এমএ সোবহান, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, মো. দ্বীন ইসলাম শেখ, শেখ সারোয়ার, আলমগীর হোসেন, মো. ফারুক শেঠ, আবু ওয়াহাব, অধ্যাপক নুরুল বশর সুজন, জাতীয় মহিলা পার্টির নেত্রী রিতু নুর, মিনি খান, মোমেনা বেগম, জেসমিন নুর প্রিয়াংকা, আসমা আক্তার, ফেরদৌসী বকুল, সীমানা আমির, সাদিয়া শারমিন, লুবনা আহমেদ, কেয়া মাসুদ, জোসনা আক্তার, ঢাকা জেলা মহিলা পার্টির আহ্বায়ক রেশমী হোসেন আজাদ প্রমুখ।