সম্প্রীতি নষ্টের ষড়যন্ত্র সফল হবে না: জিএম কাদের
jugantor
সম্প্রীতি নষ্টের ষড়যন্ত্র সফল হবে না: জিএম কাদের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৩০:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেছেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য রয়েছে আমাদের। যে কোনো ত্যাগের বিনিময়ে আমরা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় বদ্ধপরিকর। যারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টে ষড়যন্ত্র করবে তারা কখনোই সফল হতে পারবে না।

শনিবার পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন। সব ধর্মের অধিকার রক্ষায় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ অনন্য ভূমিকা রেখেছিলেন। শুভ জন্মাষ্টমীর দিনটিকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছিলেন। জাতীয় পার্টির শাসনামলে প্রায় চার যুগ পরে রাজধানীতে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা বের হয়। এছাড়া বিভিন্ন পূজা ও উৎসবে নিরাপত্তা ও আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন। পল্লীবন্ধুর হাতে গড়া হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট এখন শতকোটি টাকার প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। মন্দির নির্মাণ ও সংস্কারে পল্লীবন্ধু বরাদ্দ রেখেছেন সব সময়।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, দপ্তর সম্পাদক-২ এমএ রাজ্জাক খান, বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি অনুপ কুমার দত্ত, সিলেট সভাপতি দীপক রায়, সাধারণ সম্পাদক সাজন কুমার মিত্র, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন কুমার রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ মাছা, সিলেট জেলা সমন্বয়ক মলয় তালুকদার, সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি অমর চক্রবর্তী, পিরোজপুর জেলা সদস্য শুভ্রদেব বড়াল প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রীতি নষ্টের ষড়যন্ত্র সফল হবে না: জিএম কাদের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেছেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য রয়েছে আমাদের। যে কোনো ত্যাগের বিনিময়ে আমরা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় বদ্ধপরিকর। যারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টে ষড়যন্ত্র করবে তারা কখনোই সফল হতে পারবে না। 

শনিবার পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন। সব ধর্মের অধিকার রক্ষায় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ অনন্য ভূমিকা রেখেছিলেন। শুভ জন্মাষ্টমীর দিনটিকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছিলেন। জাতীয় পার্টির শাসনামলে প্রায় চার যুগ পরে রাজধানীতে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা বের হয়। এছাড়া বিভিন্ন পূজা ও উৎসবে নিরাপত্তা ও আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন। পল্লীবন্ধুর হাতে গড়া হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট এখন শতকোটি টাকার প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। মন্দির নির্মাণ ও সংস্কারে পল্লীবন্ধু বরাদ্দ রেখেছেন সব সময়। 

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, দপ্তর সম্পাদক-২ এমএ রাজ্জাক খান, বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি অনুপ কুমার দত্ত, সিলেট সভাপতি দীপক রায়, সাধারণ সম্পাদক সাজন কুমার মিত্র, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন কুমার রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ মাছা, সিলেট জেলা সমন্বয়ক মলয় তালুকদার, সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি অমর চক্রবর্তী, পিরোজপুর জেলা সদস্য শুভ্রদেব বড়াল প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর