পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীদের মুখে চুনকালি পড়েছে: রওশন এরশাদ
jugantor
পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীদের মুখে চুনকালি পড়েছে: রওশন এরশাদ

  সংসদ প্রতিবেদক  

২৯ জুন ২০২২, ২২:০১:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীদের মুখে চুনকালি পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক কথা হয়েছিল। এটি আজ সত্যি সত্যি বাস্তবায়িত হয়েছে। পদ্মা শুধুমাত্র একটি সেতু নয়, এটি সক্ষমতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। এটি সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানাই।

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে রওশন এরশাদ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এখন সবারই মুখে চুনকালি পড়েছে। সবার মুখ বন্ধ হয়েছে। এ সময় তিনি অসুস্থ হয়ে ব্যাংককে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার শারীরিক খোঁজ নেওয়ায় স্পিকার, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। একইসঙ্গে তিনি সিলেট-সুনামগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বানভাসিদের সমস্যার স্থায়ী সমাধানে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

প্রায় আট মাস ব্যাংককে চিকিৎসা শেষে গত ২৭ জুন দেশে ফেরেন রওশন এরশাদ।গত বছরের ৫ নভেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্যাংকক নেওয়া হয় তাকে। ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলে। এর আগে ফুসফুসের জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) টানা ৮৪ দিন ছিলেন তিনি। আগামী ৪ জুলাই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তার আবার ব্যাংকক যাওয়ার কথা রয়েছে।

পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীদের মুখে চুনকালি পড়েছে: রওশন এরশাদ

 সংসদ প্রতিবেদক 
২৯ জুন ২০২২, ১০:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীদের মুখে চুনকালি পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ। 

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক কথা হয়েছিল। এটি আজ সত্যি সত্যি বাস্তবায়িত হয়েছে। পদ্মা শুধুমাত্র একটি সেতু নয়, এটি সক্ষমতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। এটি সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানাই। 

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে রওশন এরশাদ এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এখন সবারই মুখে চুনকালি পড়েছে। সবার মুখ বন্ধ হয়েছে। এ সময় তিনি অসুস্থ হয়ে ব্যাংককে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তার শারীরিক খোঁজ নেওয়ায় স্পিকার, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। একইসঙ্গে তিনি সিলেট-সুনামগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বানভাসিদের সমস্যার স্থায়ী সমাধানে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। 

প্রায় আট মাস ব্যাংককে চিকিৎসা শেষে গত ২৭ জুন দেশে ফেরেন রওশন এরশাদ।গত বছরের ৫ নভেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্যাংকক নেওয়া হয় তাকে। ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলে। এর আগে ফুসফুসের জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) টানা ৮৪ দিন ছিলেন তিনি। আগামী ৪ জুলাই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তার আবার ব্যাংকক যাওয়ার কথা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন