ব্যারিস্টার রফিক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি: ডা. জাফরুল্লাহ
jugantor
ব্যারিস্টার রফিক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি: ডা. জাফরুল্লাহ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২২ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৫০:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

হাসপাতালে জীবন সংকটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন প্রখ্যাত আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হককে দেখতে গিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর মগবাজারে আদ-দ্বীন হাসপাতালের আইসিইউতে ব্যারিস্টার রফিককে দেখতে যান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আদ-দ্বীন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রফেসর ডা. নাহিদ ইয়াসমিন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু। পরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, দেশে অনেকের টাকা-পয়সা থাকে কিন্তু তারা দান-খয়রাত করে না। কিন্তু ব্যারিস্টার রফিক-উল হক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি।
তিনি বলেন, আপনারা সবাই জানেন তিনি অত্যন্ত জ্ঞানী আইনজ্ঞ। দেশে অনেকের টাকা-পয়সা থাকে কিন্তু তারা দান-খয়রাত করে না। কিন্তু ব্যারিস্টার রফিক-উল হক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ব্যারিস্টার রফিক-উল হক যখন অ্যাটর্নি জেনারেল হতে রাজি হলেন, তাকে আমি কিছুটা প্রভাবিত করেছিলাম।

তিনি বলেন, আদ-দ্বীন হাসপাতালে ব্যারিস্টার রফিক-উল হক সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেন। চিকিৎসকরা দিন-রাত তার সেবা করছেন। আমি আশা করি, আল্লাহ তাকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেবেন।

ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের স্বাস্থ্য প্রসঙ্গে আদ-দ্বীন হাসপাতালের ডিরেক্টর জেনারেল ডা. অধ্যাপক নাহিদ ইয়াসমিন বলেন, উনি (ব্যারিস্টার রফিক-উল হক) এখনও লাইফ সাপোর্টে আছেন। উনার ফুসফুসের অবস্থা আগের চেয়ে একটু উন্নতি হয়েছে, তবে এখনও ক্রিটিক্যাল অবস্থাতেই রয়েছেন। বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় তিনি আক্রান্ত। তার চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করে যাচ্ছি বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।

ব্যারিস্টার রফিক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি: ডা. জাফরুল্লাহ

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২২ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হাসপাতালে জীবন সংকটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন প্রখ্যাত আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হককে দেখতে গিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর মগবাজারে আদ-দ্বীন হাসপাতালের আইসিইউতে ব্যারিস্টার রফিককে দেখতে যান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আদ-দ্বীন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রফেসর ডা. নাহিদ ইয়াসমিন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু। পরে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, দেশে অনেকের টাকা-পয়সা থাকে কিন্তু তারা দান-খয়রাত করে না। কিন্তু ব্যারিস্টার রফিক-উল হক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি।
তিনি বলেন, আপনারা সবাই জানেন তিনি অত্যন্ত জ্ঞানী আইনজ্ঞ। দেশে অনেকের টাকা-পয়সা থাকে কিন্তু তারা দান-খয়রাত করে না। কিন্তু ব্যারিস্টার রফিক-উল হক অত্যন্ত দানশীল ব্যক্তি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ব্যারিস্টার রফিক-উল হক যখন অ্যাটর্নি জেনারেল হতে রাজি হলেন, তাকে আমি কিছুটা প্রভাবিত করেছিলাম।

তিনি বলেন, আদ-দ্বীন হাসপাতালে ব্যারিস্টার রফিক-উল হক সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেন। চিকিৎসকরা দিন-রাত তার সেবা করছেন। আমি আশা করি, আল্লাহ তাকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেবেন।

ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের স্বাস্থ্য প্রসঙ্গে আদ-দ্বীন হাসপাতালের ডিরেক্টর জেনারেল ডা. অধ্যাপক নাহিদ ইয়াসমিন বলেন, উনি (ব্যারিস্টার রফিক-উল হক) এখনও লাইফ সাপোর্টে আছেন। উনার ফুসফুসের অবস্থা আগের চেয়ে একটু উন্নতি হয়েছে, তবে এখনও ক্রিটিক্যাল অবস্থাতেই রয়েছেন। বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় তিনি আক্রান্ত। তার চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করে যাচ্ছি বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।