আর আগের রাতের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না: ব্যারিস্টার তাসমিয়া
jugantor
আর আগের রাতের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না: ব্যারিস্টার তাসমিয়া

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫৮:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন (ইসি) দিয়ে দেশে নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না বলে হুশিয়ার করেছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা।

দলটির সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেন, বারবার বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে এ কথা পরিষ্কার এবং প্রমাণিত হয়ে গেছে, সার্চ কমিটির নির্বাচন কমিশন দিয়ে আর যাই হোক না কেন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতকরণ সম্ভব নয়।

জাগপা সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন ও জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতকরণ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ৫০ বছর পেরিয়ে গেছে। অথচ আমরা এখনো নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে একটি সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করতে পারিনি।এটা আমাদের ব্যর্থতা। তাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে সবার পরামর্শ গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করতে হবে। কোনো ব্যক্তি অথবা দলের পছন্দের সার্চ কমিটির নির্বাচন কমিশন দিয়ে বাংলার মাটিতে আর আগের রাতের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না।

তিনি আরও বলেন, জাগপার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান এবং জাগপার প্রয়াত সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান জীবন দিয়েছেন, কিন্তু কোনোদিন অন্যায়ের সামনে মাথানত করেন নাই। তাদের আত্মত্যাগ থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ করতে হবে। দেশের মানুষের ভোটাধিকার নেই বহু আগে থেকে। আর এখন দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে মানুষকে দিশেহারা করার খেলা চলছে। গ্যাসের দাম বাড়ছে, তেলের দাম বাড়ছে, বিদ্যুতের দাম বাড়ছে। অভিভাবকরা সন্তানদের শিক্ষা খরচ বহন করতে পারছেন না। সাধারণ মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, লবণ কিনে খেতে পারছে না। জিডিপি বৃদ্ধির ছেলেভুলানো কথায় আর কত দিন চলবে?

জাগপা আয়োজিত সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন- জামায়াতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক শিবির সভাপতি ড. রেজাউল করিম, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেন, সহসভাপতি ও দলীয় মুখপাত্র রাশেদ প্রধান, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবু মোজাফফর মো. আনাছ, আসাদুর রহমান খান, সহসভাপতি সৈয়দ মো. সফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন মোড়ল, মো. ইনসান আলম আক্কাস, মানিক সরকার, ঢাকা মহানগর সভাপতি আরিফ হোসেন ফিরোজ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ এনায়েত আহমেদ হালিম, যুব জাগপা সভাপতি আরিফুল হক তুহিন, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ রহমান, সহসভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম, জাগপা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র সরকার, ঢাকা মহানগর যুব জাগপা আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম বাবলু, ছাত্রনেতা সৈয়দ আহমেদ শফি প্রমুখ।

এদিকে জাগপা সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় পঞ্চগড়, দিনাজপুর, বগুড়া, যশোর, ঠাকুরগাঁও, গাইবান্ধা, নীলফামারীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়।

আর আগের রাতের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না: ব্যারিস্টার তাসমিয়া

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২২ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন (ইসি) দিয়ে দেশে নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না বলে হুশিয়ার করেছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা। 

দলটির সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেন, বারবার বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে এ কথা পরিষ্কার এবং প্রমাণিত হয়ে গেছে, সার্চ কমিটির নির্বাচন কমিশন দিয়ে আর যাই হোক না কেন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতকরণ সম্ভব নয়। 

জাগপা সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন ও জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতকরণ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ৫০ বছর পেরিয়ে গেছে। অথচ আমরা এখনো নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে একটি সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করতে পারিনি।এটা আমাদের ব্যর্থতা। তাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে সবার পরামর্শ গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ন করতে হবে। কোনো ব্যক্তি অথবা দলের পছন্দের সার্চ কমিটির নির্বাচন কমিশন দিয়ে বাংলার মাটিতে আর আগের রাতের নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না।

তিনি আরও বলেন, জাগপার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান এবং জাগপার প্রয়াত সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান জীবন দিয়েছেন, কিন্তু কোনোদিন অন্যায়ের সামনে মাথানত করেন নাই। তাদের আত্মত্যাগ থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ করতে হবে। দেশের মানুষের ভোটাধিকার নেই বহু আগে থেকে। আর এখন দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে মানুষকে দিশেহারা করার খেলা চলছে। গ্যাসের দাম বাড়ছে, তেলের দাম বাড়ছে, বিদ্যুতের দাম বাড়ছে। অভিভাবকরা সন্তানদের শিক্ষা খরচ বহন করতে পারছেন না। সাধারণ মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, লবণ কিনে খেতে পারছে না। জিডিপি বৃদ্ধির ছেলেভুলানো কথায় আর কত দিন চলবে?

জাগপা আয়োজিত সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন- জামায়াতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক শিবির সভাপতি ড. রেজাউল করিম, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেন, সহসভাপতি ও দলীয় মুখপাত্র রাশেদ প্রধান, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবু মোজাফফর মো. আনাছ, আসাদুর রহমান খান, সহসভাপতি সৈয়দ মো. সফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন মোড়ল, মো. ইনসান আলম আক্কাস, মানিক সরকার, ঢাকা মহানগর সভাপতি আরিফ হোসেন ফিরোজ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ এনায়েত আহমেদ হালিম,  যুব জাগপা সভাপতি আরিফুল হক তুহিন, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ রহমান, সহসভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম, জাগপা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র সরকার, ঢাকা মহানগর যুব জাগপা আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম বাবলু, ছাত্রনেতা সৈয়দ আহমেদ শফি প্রমুখ।

এদিকে জাগপা সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় পঞ্চগড়, দিনাজপুর, বগুড়া, যশোর, ঠাকুরগাঁও, গাইবান্ধা, নীলফামারীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন