‘সরকারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের খেপিয়ে তোলার মিশনে ভিসিরা’
jugantor
‘সরকারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের খেপিয়ে তোলার মিশনে ভিসিরা’

  সংসদ প্রতিবেদক  

২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:১৩:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

‘সরকারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের খেপিয়ে তোলার মিশনে ভিসিরা’

‘সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের কারো কারো কাণ্ডজ্ঞানহীন কথাবার্তা, আচার-আচরণ দুঃখজনক। ভাব দেখে মনে হচ্ছে, কতিপয় ভিসি সাহেবরা ছাত্রছাত্রীদের সরকারের বিরুদ্ধে খেপিয়ে তোলার মিশনে নেমেছেন। এটা দুঃখজনক। এ ব্যাপারে সরকারের নজর দেওয়া উচিত।’

বুধবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় এসব কথা বলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

ইনু বলেন, মৌসুমে মৌসুমে জঙ্গি তাণ্ডব, জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেই চলেছে। এতে প্রমাণ হয় যে হেফাজত-জামায়াত-জঙ্গি এরা বদলায়নি। এরা বাংলাদেশের রেজিস্টার্ড বেইমান। পাকিস্তান পন্থার ধারক ও বাহক। এদের আত্মা পাকিস্তানি। এই সাম্প্রদায়িক চক্র বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষতাকে হারাম বলে। আর ভারত, আমেরিকা, ইংল্যান্ডে গেলে তারা ধর্মনিরপেক্ষতাকে হালাল বলে। এ দ্বিমুখী চালবাজির রাজনীতি বন্ধ করা দরকার। এটা প্রমাণ হয় যে জেএমবি-জামায়াত-জঙ্গিরা হচ্ছে মাঠের অ্যাক্টর।

তিনি বলেন, জামায়াত হচ্ছে ডিরেক্টর। বিএনপি হচ্ছে প্রডিউসার। সুতরাং এরা পাক রুহানি শক্তি দ্বারা পরস্পর সংযুক্ত। জেনেটিকালি সম্পর্কযুক্ত। তিন পক্ষকেই দমন ও বিদায় জানানো উচিত। এ সময় হেফাজতের বিভিন্ন তাণ্ডব, ধ্বংস ও এর ক্ষয়ক্ষতির ওপর শ্বেতপত্র প্রকাশ, দুর্গাপূজার সময় সাম্প্রদায়িক হামলার ওপর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দেওয়া, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং কমিশন গঠনের দাবি জানান ইনু।

বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ পথচলার জন্য স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে সংবিধান পর্যালোচনা করা দরকার উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, সংবিধান পর্যালোচনা ও সংস্কার করা দরকার। সে জন্য সংবিধান পর্যালোচনার জন্য সংসদের বিশেষ কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেন তিনি।

জাসদ সভাপতি বলেন, সাম্প্রতিক ইউপি নির্বাচনে যে রক্তারক্তি-খুনোখুনি হয়েছে, তার দায় প্রশাসন এবং পুলিশ এড়াতে পারে না। তাদের এই দায় নেওয়া উচিত এবং সংশোধন হওয়া উচিত।

এ সময় নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্য ওঠানামা মূল্যস্ফীতির জন্য নয়, বাজার কারসাজির জন্য মন্তব্য করে এ ব্যাপারে কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে উল্লেখ করেন সাবেক এই মন্ত্রী।

‘সরকারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের খেপিয়ে তোলার মিশনে ভিসিরা’

 সংসদ প্রতিবেদক 
২৬ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘সরকারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের খেপিয়ে তোলার মিশনে ভিসিরা’
শাবির ভিসির পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন। ফাইল ছবি

‘সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের কারো কারো কাণ্ডজ্ঞানহীন কথাবার্তা, আচার-আচরণ দুঃখজনক। ভাব দেখে মনে হচ্ছে, কতিপয় ভিসি সাহেবরা ছাত্রছাত্রীদের সরকারের বিরুদ্ধে খেপিয়ে তোলার মিশনে নেমেছেন। এটা দুঃখজনক। এ ব্যাপারে সরকারের নজর দেওয়া উচিত।’

বুধবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় এসব কথা বলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

ইনু বলেন, মৌসুমে মৌসুমে জঙ্গি তাণ্ডব, জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেই চলেছে। এতে প্রমাণ হয় যে হেফাজত-জামায়াত-জঙ্গি এরা বদলায়নি। এরা বাংলাদেশের রেজিস্টার্ড বেইমান। পাকিস্তান পন্থার ধারক ও বাহক। এদের আত্মা পাকিস্তানি। এই সাম্প্রদায়িক চক্র বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষতাকে হারাম বলে। আর ভারত, আমেরিকা, ইংল্যান্ডে গেলে তারা ধর্মনিরপেক্ষতাকে হালাল বলে। এ দ্বিমুখী চালবাজির রাজনীতি বন্ধ করা দরকার। এটা প্রমাণ হয় যে জেএমবি-জামায়াত-জঙ্গিরা হচ্ছে মাঠের অ্যাক্টর।

তিনি বলেন, জামায়াত হচ্ছে ডিরেক্টর। বিএনপি হচ্ছে প্রডিউসার। সুতরাং এরা পাক রুহানি শক্তি দ্বারা পরস্পর সংযুক্ত। জেনেটিকালি সম্পর্কযুক্ত। তিন পক্ষকেই দমন ও বিদায় জানানো উচিত। এ সময় হেফাজতের বিভিন্ন তাণ্ডব, ধ্বংস ও এর ক্ষয়ক্ষতির ওপর শ্বেতপত্র প্রকাশ, দুর্গাপূজার সময় সাম্প্রদায়িক হামলার ওপর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দেওয়া, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং কমিশন গঠনের দাবি জানান ইনু।

বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ পথচলার জন্য স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে সংবিধান পর্যালোচনা করা দরকার উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, সংবিধান পর্যালোচনা ও সংস্কার করা দরকার। সে জন্য সংবিধান পর্যালোচনার জন্য সংসদের বিশেষ কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেন তিনি।

জাসদ সভাপতি বলেন, সাম্প্রতিক ইউপি নির্বাচনে যে রক্তারক্তি-খুনোখুনি হয়েছে, তার দায় প্রশাসন এবং পুলিশ এড়াতে পারে না। তাদের এই দায় নেওয়া উচিত এবং সংশোধন হওয়া উচিত। 

এ সময় নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্য ওঠানামা মূল্যস্ফীতির জন্য নয়, বাজার কারসাজির জন্য মন্তব্য করে এ ব্যাপারে কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে উল্লেখ করেন সাবেক এই মন্ত্রী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন