বয়সটা জিমেই শেষ করে দিচ্ছে ছেলেরা: তসলিমা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৯, ১৮:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

বয়সটা জিমেই শেষ করে দিচ্ছে ছেলেরা: তসলিমা
ছবি: তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে

যে সব স্থানে মেয়েদের যাতায়াত বেশি হওয়ার কথা সে সবই ছেলেরা দখল করে নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশি লেখিকা তসমিলা নাসরিন।

বিশেষ করে জিম ও পার্লারে গেলে ছেলেদের আধিক্যের কারণে মেয়েরা সুযোগ পাচ্ছে না বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে আজ নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন তসলিমা নাসরিন।

তিনি লেখেন, ছেলেদের জ্বালায় জিমে ঢোকা যায় না, মেশিনই খালি পাওয়া যায় না। ইয়াং ইয়াং ছেলে,২২-২৩ বা বড়জোর ২৪-২৫ বছর বয়স। পাগলের মতো ব্যায়াম করছে, ঘণ্টার পর ঘণ্টা জিমে পড়ে থাকছে।

সিক্স প্যাকের নেশায় পেয়েছে এদের। শরীরে এক ফোঁটা চর্বি নেই, কোনো অসুখ নেই, কিন্তু মাসল বানাবে। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজের শক্ত শক্ত ফোলা ফোলা মাসল দেখে আর আনন্দ পায়। পারলে ২৪ ঘণ্টা এরা পড়ে থাকে জিমে।

তিনি আরও লেখেন, যে বয়সে বই পড়বে, ভ্রমণ করবে, সমাজের নানা বিষয়ে আলোচনা করবে, শিল্প, সাহিত্য, নাটক, সিনেমা, বিজ্ঞান, রাজনীতি, সমাজনীতি, অর্থনীতি, নারীবাদ, সাম্যবাদ, পুঁজিবাদ, ইতিহাস, ভূগোল, অধিকার আন্দোলন ইত্যাদি নিয়ে মেতে থাকবে, সেই বয়সটা জিমে শেষ করছে।

ফিল্মের নায়কদের ছবি দেখে, আর স্বপ্ন দেখে ওদের মতো শরীর বানানোর। নায়কগুলো অভিনয়ের অ-ও জানে না, তাই মাসলই তাদের ভরসা।

আর এই প্রজন্মেরও মনে হচ্ছে যুক্তিবুদ্ধির য-ও মাথায় নেই, মাসলই ভরসা। কুসংস্কারে আচ্ছন্ন, কিন্তু চমৎকার শরীর চাই।

জিম করা ভালো জানিয়ে তসলিমা আরও লিখেছেন, জিম ভালো জিনিস। ব্যায়াম করলে শরীর সুস্থ থাকে। কিন্তু তার জন্য একটা বয়স আছে। তার জন্য একটা সময়ও আছে। শরীর শরীর শরীর।

আগে ভাবতাম, মেয়েরাই বুঝি শরীর নিয়ে আবসেড। এখন দেখছি ছেলেরাই বেশি। আজকাল তো পার্লারেও ছেলেরা ম্যানিকিওর পেডিকিওর, ফেসিয়াল ইত্যাদি করতে ঢুকছে।

পার্লারে বোধ হয় এক সময় জিমের মতো ছেলেদের ভিড়ই বেশি হবে। পার্লারে হয়তো ছেলেদের জ্বালায় ঢোকা যাবে না। সবগুলো চেয়ার ওরাই দখল করে বসে থাকবে।

এ সব জানিয়ে অবশেষে তসলিমা নাসরিন বলেন, মেয়েদের ব্যায়াম, মেয়েদের সাজগোজ সবই ছেলেরা দখল করে নিচ্ছে। সংসারে মেয়েদের কিচেনটা কবে দখল করবে? ঘর- দোর সাফ করার, বাচ্চা-কাচ্চা লালন করার কাজটা কবে দখল করবে? ওগুলো দখল করলে তো একটা কাজের কাজ হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×