অটল বিহারি নরমপন্থী নেতা ছিলেন : তসলিমা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৪:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

বাজপেয়ি ও তসলিমা
অটল বিহারি বাজপেয়ি (বাঁয়ে) ও তসলিমা নাসরিন

সদ্য প্রয়াত ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়িকে নরমপন্থী নেতা বলে মনে করেন তসলিমা নাসরিন।

রোববার সকালে বিজেপির এ নেতাকে নিয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

ভারতে নির্বাসিত লেখিকা তসলিমার ভাষ্য, অটল বিহারি বাজপেয়ি বিজেপির নরমপন্থী নেতা ছিলেন। নেতা তখনই মহান হন, যখন দলের উগ্রপন্থাকে দমন করতে পারেন। গান্ধীকে বা নেহরুকে মহান বলতে আমার বাধে। কারণ তাদের সাধ্য থাকা সত্ত্বেও তারা ভারত ভাগকে ঠেকাননি। অটল বিহারিও তার দলের উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেননি।

বিতর্কিত এ লেখিকা আরও লেখেন- ‘অটল বিহারির জীবনের কোন অংশটিকে আমি পছন্দ করি? তার ব্যক্তিজীবন। কলেজের বন্ধু রাজকুমারী হাস্কারকে ভালোবাসতেন তিনি। শুনেছি ওরা বিয়ে করতে পারেননি। কারণ কাস্টে মেলেনি। রাজকুমারীর বিয়ে হয়ে যায় বিএন কৌলের সঙ্গে।

অনেকে বলেন, রাজকুমারীকে না পেয়ে অটল বিহারি বিয়েই করেননি জীবনে। তবে রাজকুমারীর স্বামী মারা গেলে তিনি রাজকুমারী আর তার সন্তানদের নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। রাজকুমারীর মেয়ে নমিতাকে নিজের মেয়ে হিসেবে গ্রহণ করেন।

এর পর থেকে ওরা তার বাড়িতেই, তার সঙ্গেই। রাজকুমারী আর তার সন্তান, সন্তানদের সন্তানই অটল বিহারির পরিবার। রাজকুমারীর সঙ্গে অটল বিহারির সম্পর্ক নিয়ে, অটল বিহারির বাড়িতে রাজকুমারীর থাকা নিয়ে লোকে কম মন্দ কথা বলেননি, কিন্তু তিনি কোনো বদনামকে পরোয়া করেননি।

মৃত্যুর পর অটল বিহারির মুখাগ্নি তার ভাইপো-ভাগ্নে করেননি। করেছে নমিতা, রাজকুমারীর মেয়ে। ব্যাপারটি চমৎকার। অটল বিহারিকে তাই একজন বড় নেতার চেয়েও আমি একজন বড় মানুষ বলে মনে করি।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter