তাইজুলের পাঁচের ‘হ্যাটট্রিক’ অভিনন্দন এনামুলের

  স্পোর্টস রিপোর্টার ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৩:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

এনামুল হক জুনিয়র-তাইজুল ইসলাম
এনামুল হক জুনিয়র-তাইজুল ইসলাম

সিলেটের পর ঢাকা। দুই টেস্টের তিন ইনিংসে টানা ৫ উইকেট করে শিকার করেছেন তাইজুল ইসলাম। টানা তিন ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করে হ্যাটট্রিক করে তাইজুল স্পশ করেছেন সাকিব আল হাসান ও এনামুল হক জুনিয়কে। এমন কৃর্তী গড়ায় তাইজুলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় দলে ‘সাবেক’ হয়ে যাওয়া এনাম জুনিয়র।

মঙ্গলবার রাতে যুগান্তরের সঙ্গে একান্ত আলাপে তাইজুল প্রসঙ্গে এনাম জুনিয়র বলেন, রেকর্ডতো আসলে ভাঙার জন্যই। অভিনন্দন তাইজুলকে। সে আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবে। তবে আমি টানা তিন ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়ায় বাংলাদেশ কিন্তু সেই টেস্টে (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে) জয় পেয়েছিল। সিলেট টেস্টে হেরে আমরা এখন ব্যাকফুটে আছি। আমার বিশ্বাস ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশ জয় পাবে। তাহলে তাইজুলের রেকর্ড আরও স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

সিলেটের ঐতিহাসিক অভিষেক টেস্টে দুই ইনিংসে ১১ উইকেট শিকার করা তাইজুল, ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে নিয়েছেন ৫ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়ের আর মাত্র ৫ উইকেট শিকার করলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে রেকর্ড গড়ার সুযোগ থাকবে তাইজুলের। তারচেয়েও বড় কথা হলে তিনি যদি ঢাকা টেস্টেও আরও ৭ উইকেট শিকার করতে পারেন তাহলে বিশ্ব রেকর্ড হবে।

তবে রেকর্ডে চোখ নেই তাইজুলের তার বিশ্বাস ভালো বোলিং করতে পারলে সেটা কোনো এক সময় হয়ে যাবে। মঙ্গলবার খেলা শেষে এই বাঁ-হাতি স্পিনার বলেন, আসলে উইকেটের যা অবস্থা, আমি যদি আমার পরিকল্পনা অনুসারে বল করেতে পারি তাহলে অসম্ভব কিছুই না। আমি আশাবাদী।

টানা তিন ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করা প্রসঙ্গে তাইজুল বলেন, ভালো পারফরম্যান্স করলে প্রতিটা ক্রিকেটারের ভালো লাগে। তবে ব্যক্তির ভালোর চেয়ে দলটা আগে। দলটা এখন ভালো অবস্থানে আছে, এটাই বড় কথা। তাই আরও বেশি ভালো লাগছে।

ঢাকা টেস্টে মুশফিকুর রহিমের ডাবল (২১৯) এবং মুমিনুল হক সৌরভের সেঞ্চুরিতে (১৬১) ভর করে ৭ উইকেটে ৫২২ রান নিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ।

জবাবে ব্যাট করতে নামা জিম্বাবুয়েকে একাই টেনে তুলেন ব্রান্ডন টেইলর। সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পর জিম্বাবুয়ের সাবেক এই অধিনায়ক ইনিংস লম্বা করার পথেই ছিলেন। তার সেই পথে বাধা হয়ে দাঁড়ান তাইজুল।

মেহেদী হাসান মিরাজের বলে স্লগ সুইপ করছিলেন টেইলর। শূন্যে লাফিয়ে ক্যাচটি মুঠোবন্দি করেন তাইজুল। এদিন ৫ উইকেট নেয়ার পাশাপাশি ফিল্ডিংয়ে অসাধারণ ক্যাচ নিয়ে আলোচনার ঝড় তুলেন তাইজুল।

মঙ্গলবার তৃতীয় দিনের খেলা শেষে ১০ উইকেটে ৩০৪ রান সংগ্রহ করেছে জিম্বাবুয়ে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১১০ রান করেন টেইলর। ৮৩ রান করেন পিটার মুর। ৫৩ রান করেন চেরি। কাইল জার্ভিস ৯ রান নিয়ে ক্রিজে আছেন। টেন্ডাই চাতারাকে নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করার কথা ছিল তার।

কিন্তু ফিল্ডিং করার সময়ে ডান পায়ের পেশিতে টান পাওয়া চাতারা স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়েন। তার ব্যাট করার সম্ভাবনা নেই। তাই ৩০৪ রানেই প্রথম ইনিংস শেষ জিম্বাবুয়ের। স্বাগতিক বাংলাদেশ থেকে ২১৮ রানে পিছিয়ে থাকায় জিম্বাবুয়ে ফলোফনে পড়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজ, ঢাকা-২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×