‘বিশ্বকাপ জেতাল যুবরাজ, বাহবা দেয়া হয় ধোনিকে’

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২২:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

ধোনি-গম্ভীর

২০০৭ ও ২০১১ সালের বিশ্বকাপের দুই আসরে ভারতের শিরোপাজয়ে অনন্য ভূমিকা রাখেন যুবরাজ সিং। বিশ্বকাপে ভারতকে ট্রফি উপহার দেয়া এই অলরাউন্ডারের বাদ রেখে অধিনায়ক ধোনিকেই সব কৃতিত্ব দেয়া হচ্ছে। আর এতেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য গৌতম গম্ভীর।

চলতি মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেয়া গম্ভীর বলেন, ২০০৭ ও ২০১১ সালের বিশ্বকাপ জয়ে যুবরাজ সিংহের মতো অবদান কারো নেই। অথচ যুবরাজকে সেই কৃতিত্ব দেয়া হয় না। সব বাহবাই ধোনিকে দেওয়া হয়। যুবরাজ না থাকলে বিশ্বকাপের ফাইনাল তো দূরে থাক সেমিফাইনালেও খেলাতে পারত না ভারত।

২০১১ সালের বিশ্বকাপে ভারতকে শিরোপা জয়ে ফাইনালে ৯৭ রানের ইনিংস খেলেন গম্ভীর। শুধু তাই নয়, সেবার ভারতের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৯৩ রান করেন তারকা এই ওপেনার।

ভারতীয় দলের সাবেক এই তারকা ওপেনার বলেন, শচীন টেন্ডুলকার, হরভজন সিংহ, যুবরাজ সিংহ, জহির খান প্রত্যেকেই ২০০৭ ও ২০১১ সালের বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তবে মিডিয়ায় শুধু মাত্র অধিনায়ক ধোনিকেই কৃতিত্ব দিচ্ছে। এটা ঠিক নয়।

২০০৩ সালে বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে ঢাকায় ওয়ানডে ক্রিকেটের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয় গম্ভীরের। এরপর থেকে ১৪৭টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ১১টি সেঞ্চুরি এবং ৩৪টি ফিফটির সাহায্যে ৫ হাজার ২৩৮ রান করেন তিনি।

ভারতের হয়ে ৫৮টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৯টি সেঞ্চুরি এবং ২২টি ফিফটির সাহায্যে ৪ হাজার ১৫৪ রান করেন গম্ভীর। আর টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ৩৭ ম্যাচ খেলে ৯৩২ রান সংগ্রহ করেন ভারতীয় এই ওপেনার।

গম্ভীর আরও বলেন, ধোনির সঙ্গে আমার সম্পর্ক বেশ ভালো তবে আমি আগেও বলেছি, বিশ্বকাপ জয়ে দলের ১৫ জন ক্রিকেটারই গুরুত্বপূর্ণ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×