লিটনের আক্ষেপ

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৪:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

লিটন দাস

সেঞ্চুরি তুলে ফিরেছিলেন মুমিনুল হক। সেঞ্চুরির হাতছানি ছিল লিটন দাসের সামনেও। তবে পারলেন না তিনি। রঙ্গনা হেরাথের শিকার হয়ে ফিরলেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। ফেরার আগে ৬টি রান আক্ষেপ হয়ে থাকল তার জন্য। ১১ চারে ৯৪ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৮৭ রান। এতে স্বাগতিকদের লিড দাঁড়িয়েছে ৮৭। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৬ ও মোসাদ্দেক হোসেন শূন্য রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

৩ উইকেটে ৮১ রান নিয়ে অনেকটা চাপের মুখে পঞ্চম দিনে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। মুমিনুল ১৮ ও লিটন দাস শূন্য রান নিয়ে খেলা শুরু করেন। সেই চাপের মুখে সকালের কঠিন সময়টা কাটিয়ে দেন তারা। এতে লড়াইয়ে ফিরে স্বাগতিকরা।

এরপর যা ঘটেছে তা রূপকথার গল্পকেও হার মানায়। চাপকে ফু দিয়ে উড়িয়ে দেন মুমিনুল-লিটন। খেলতে থাকেন ছন্দময় ক্রিকেট। দুজনই উইকেটের চারপাশে শটের পসরা সাজান। লংকান বোলারদের নির্বিষ প্রমাণ করে ছাড়েন তারা। ক্যারিয়ারে ৬ষ্ঠ সেঞ্চুরি তুলে নেন মুমিনুল। এর আগে ক্যারিয়ারে তৃতীয় ফিফটি তুলে নেন লিটন। তাদের ব্যাটে সওয়ার হয়ে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

৫ চার ও ২ ছক্কায় ১০৫ রান করে ফেরেন মুমিনুল। এর আগে লিটনকে নিয়ে একাধিক রেকর্ড গড়েন তিনি। বাঁধেন ১৮০ রানের পার্টনারশিপ। যা বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ উইকেট জুটিতে সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপ।

সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে অসামান্য কীর্তি গড়েন মুমিনুল। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১ টেস্টে জোড়া সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন তিনি।

এ ইনিংস খেলার পথে আরেকটি রেকর্ড নিজের করে নেন পয়েট অব ডায়নামো। ১ টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ রানের (২৮১) রেকর্ড নিজের করে নেন তিনি। শ্রীলংকার বিপক্ষে চলমান টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস খেলেন এ টপ অর্ডার।

এর আগে রেকর্ডটি ছিল বাংলাদেশ ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালের। ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্টে ২৩১ রান করেছিলেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশ শ্রীলংকা টেস্ট ঢাকা ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×