কাশ্মীর হামলায় ইমরান খানকে সমর্থন আফ্রিদির

প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় তথাকথিত পাকিস্তানের ‘জঙ্গি’ হামলায় ভারতের ৪৯ সিআরপিএফ সদস্য মারা গেছেন। নৃশংস সেই হামলায় রাগে-ক্ষোভে ফুঁসছেন ভারতীয়রা। পাকিস্তানবিরোধী প্রতিবাদে সোচ্চার তারা। চিরশত্রু পড়শীদের জানাচ্ছেন ধিক্কার।

পাকিস্তানিরা কম যাচ্ছেন না। পাল্টা জবাব দিচ্ছেন তারাও। সব মিলিয়ে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক ইতিহাসে সবচেয়ে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। রাজনীতিবিদ থেকে সাধারণ মানুষের মধ্যেও যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। ব্যতিক্রম নন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের ক্রিকেটাররাও।

পুলওয়ামা হামলায় ক্ষেপে ওঠেন ভারতীয় বর্তমান, সাবেক ক্রিকেটারসহ সংশ্লিষ্টরা। তবে সবচেয়ে বেশি আগ্রাসী ছিলেন সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর। তিনি টুইটারে পাকিস্তানের বিপক্ষে যুদ্ধ ঘোষণা করেন।

পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) শোয়েব মালিকের নেতৃত্বাধীন মুলতান সুলতানের হয়ে খেলছেন শহীদ আফ্রিদি। এর আগে একবার কাশ্মীর ইস্যুতে লেগেছিল দুজনের। এবারও গম্ভীরের বার্তার প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়েছিল আফ্রিদির কাছে। তবে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি তিনি।

অবশেষে মুখ খুললেন বুমবুমখ্যাত ক্রিকেটার। করলেন নিজের অবস্থান পরিষ্কার। গম্ভীরকে পাল্টার ইঙ্গিত দিয়ে পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও ’৯২ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানকে সমর্থন জানিয়েছেন তিনি।

কাশ্মীরে বর্বর জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানের ওপর চাপ বাড়াতে থাকে ভারত। পরিপ্রেক্ষিতে ভিডিওবার্তায় প্রতিবেশী দেশের কাছে ঘটনায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার প্রমাণ চান ইমরান খান। তাদের আলোচনার টেবিলে বসার আহ্বান জানান তিনি। পাশাপাশি কার্যত হুমকিও দেন- ভারত আঘাত করলে নিশ্চিত প্রত্যাঘাত করবে পাকিস্তান।

এবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে পাক প্রধানমন্ত্রীর সেই ভিডিও পোস্ট করে আফ্রিদি লেখেন- একেবারে স্ফটিক ও স্বচ্ছ্ব। পর পরই তার টুইটে ব্যাকরণগত ভুল নিয়ে ব্যঙ্গবিদ্রুপ শুরু করেন ভারতীয়রা। তবে ইমরানের বক্তব্যকে সমর্থন করে তাদের চক্ষুশূল হতেও খুব বেশি সময় লাগেনি সাবেক পাকিস্তান অলরাউন্ডার ও অধিনায়কের।