‘মনে হচ্ছিল সিনেমা দেখছি, মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসছিল রক্তাক্ত মানুষ’

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৬ মার্চ ২০১৯, ১০:০০ | অনলাইন সংস্করণ

মাসুদ,

ভয়াবহ হামলায় প্রকম্পিত ক্রাইস্টচার্চ। মসজিদ আল নূরে সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৪১ জন। জখম প্রায় অর্ধশতাধিক। তবে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা।

সেই মসজিদেই জুমার নামাজ পাঠের জন্য গিয়েছিলেন তারা। সাক্ষাৎ মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন। অবশ্য কারো কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তামিম-মুশফিকরা। তাদের মানসিক অবস্থা এবং ঘটনার ভয়াবহতা বর্ণনা করেছেন খালেদ মাসুদ পাইলট।

কথা বলার সময় বাংলাদেশ দলের ম্যানেজারের চোখে মুখে আতঙ্ক ফুটে ওঠে। তিনি বলেন, আর ৫-৭ মিনিট আগে হলে আমরা মসজিদেই থাকতাম। যা ঘটেছে তা অত্যন্ত ভয়ের। চাই না কখনও এরকম হোক। কেউ এর কবলে পড়ুক। আমরা অতি সৌভাগ্যবান।

তিনি বলেন, বাসে ১৬-১৭ জন ছিলাম। এর মধ্যে সৌম্য সরকার ছিল। আমরা নামাজ আদায় করতে যাচ্ছিলাম। আমাদের দুজন সদস্য হোটেলেই থেকে গিয়েছিল। মসজিদের ৫০ গজের মধ্যে ছিলাম। বাস থেকে আমরা সব দেখতে পাচ্ছিলাম। মনে হচ্ছিল যেন সিনেমা দেখছি। রক্তাক্ত হয়ে মানুষ মসজিদ ছেড়ে বেরিয়ে আসছিল।

খালেদ মাসুদ আরও বলেন, আমরা নিজেরাও বাসের মধ্যে ৮-১০ মিনিট মাথা নিচু করে ছিলাম। যদি ওরা গুলি চালায় এ ভয়। পরে বুঝলাম এটা সন্ত্রাসীদের কার্যকলাপ।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফর-২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×