অন্যান্য দেশ আমাদের মতো নিরাপত্তা দেয় না: মাশরাফি
jugantor
অন্যান্য দেশ আমাদের মতো নিরাপত্তা দেয় না: মাশরাফি

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৬ মার্চ ২০১৯, ১৪:৫৮:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা মনে করেন, এ দেশ সফরে বিদেশি দলগুলো যেরকম নিরাপত্তা পায় অন্যান্য দেশে তা বিরল। এখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা বিশ্বমানের। বলতে গেলে এর চেয়েও বেশি।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলার পর দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যমে কলাম লিখেছেন মাশরাফি। তাতেই অন্যান্য দেশের সঙ্গেথে নিজেদের নিরাপত্তার পার্থক্যকে তুলে ধরেছেন তিনি।

নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, আমাদের দেশে কোনো বিদেশি দল খেলতে এলে সম্পূর্ন নিরাপত্তা দেয়া হয়। আমাদের সরকার ও ক্রিকেট বোর্ড যে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে সেটি বিশ্বমানের বললেও কম হবে। আমরা সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিই। যেটা সাধারণত রাষ্ট্রপ্রধানদের দেয়া হয়।

এত নিরাপত্তা দেয়ার পরও কথা শুনতে হয় বাংলাদেশকে। সফরকারী দলের বাসে কোনোভাবে কিছু পড়লে তা নিয়ে বিশ্ব গণমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে। বর্হির্বিশ্ব থেকে দুয়োধ্বনি ছুটে আসেন। এখানেই যত আক্ষেপ মাশরাফির। তার ভাষ্যমতে, বিশ্বমানের নিরাপত্তা দেয়ার পরও আমাদের হাজারো কথা শুনতে হয়। সাধারণ কোনো দর্শক সফরকারীর দলের টিম বাসে ঢিল ফেললেও বিশ্ব গণমাধ্যমে হইচই পড়ে যায়।

ছবির মতো সুন্দর দেশ নিউজিল্যান্ড। বিশ্ব শান্তিসূচকেরও প্রথমদিকে। এরকম শান্তিপ্রিয় দেশে নারকীয় হামলার পর প্রতিটি সফরেই বাংলাদেশকে এখন নিরাপত্তা নিয়ে ভাবতে হবে বলে মনে করেন টাইগার দলপতি।

তার মতামত,মাথায় রাখতে হবে নিউজিল্যান্ডের মতো দেশে এ হামলা হয়েছে। সেখানে এমন ঘৃণ্য ঘটনা ঘটবে এটা চিন্তার বাইরে। এখন আমাদের প্রতিটি সফরেই নিরাপত্তা নিয়ে ভাবতে হবে। ভবিষ্যতে ভীষণ সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি যোগ করেন, আমরা জাতিগতভাবেই খেলাধুলা পছন্দ করি। ক্রিকেট এখন অন্য জায়গায় চলে গিয়েছে। আশা করি,এরপর সব পর্যায়ে সচেতনতা বাড়বে। মানুষ হিসেবে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা মেনে নেয়া ভীষণ পীড়াদায়ক।

অন্যান্য দেশ আমাদের মতো নিরাপত্তা দেয় না: মাশরাফি

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৬ মার্চ ২০১৯, ০২:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা মনে করেন, এ দেশ সফরে বিদেশি দলগুলো যেরকম নিরাপত্তা পায় অন্যান্য দেশে তা বিরল। এখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা বিশ্বমানের। বলতে গেলে এর চেয়েও বেশি।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলার পর দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যমে কলাম লিখেছেন মাশরাফি। তাতেই অন্যান্য দেশের সঙ্গেথে নিজেদের নিরাপত্তার পার্থক্যকে তুলে ধরেছেন তিনি।

নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, আমাদের দেশে কোনো বিদেশি দল খেলতে এলে সম্পূর্ন নিরাপত্তা দেয়া হয়। আমাদের সরকার ও ক্রিকেট বোর্ড যে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে সেটি বিশ্বমানের বললেও কম হবে। আমরা সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিই। যেটা সাধারণত রাষ্ট্রপ্রধানদের দেয়া হয়।

এত নিরাপত্তা দেয়ার পরও কথা শুনতে হয় বাংলাদেশকে। সফরকারী দলের বাসে কোনোভাবে কিছু পড়লে তা নিয়ে বিশ্ব গণমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে। বর্হির্বিশ্ব থেকে দুয়োধ্বনি ছুটে আসেন। এখানেই যত আক্ষেপ মাশরাফির। তার ভাষ্যমতে, বিশ্বমানের নিরাপত্তা দেয়ার পরও আমাদের হাজারো কথা শুনতে হয়। সাধারণ কোনো দর্শক সফরকারীর দলের টিম বাসে ঢিল ফেললেও বিশ্ব গণমাধ্যমে হইচই পড়ে যায়।

ছবির মতো সুন্দর দেশ নিউজিল্যান্ড। বিশ্ব শান্তিসূচকেরও প্রথমদিকে। এরকম শান্তিপ্রিয় দেশে নারকীয় হামলার পর প্রতিটি সফরেই বাংলাদেশকে এখন নিরাপত্তা নিয়ে ভাবতে হবে বলে মনে করেন টাইগার দলপতি।

তার মতামত,মাথায় রাখতে হবে নিউজিল্যান্ডের মতো দেশে এ হামলা হয়েছে। সেখানে এমন ঘৃণ্য ঘটনা ঘটবে এটা চিন্তার বাইরে। এখন আমাদের প্রতিটি সফরেই নিরাপত্তা নিয়ে ভাবতে হবে। ভবিষ্যতে ভীষণ সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি যোগ করেন, আমরা জাতিগতভাবেই খেলাধুলা পছন্দ করি। ক্রিকেট এখন অন্য জায়গায় চলে গিয়েছে। আশা করি,এরপর সব পর্যায়ে সচেতনতা বাড়বে। মানুষ হিসেবে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা মেনে নেয়া ভীষণ পীড়াদায়ক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফর-২০১৯