আইপিএলে এবার মানকাডিং আউট নিয়ে তুমুল বিতর্ক (ভিডিওসহ)

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৬ মার্চ ২০১৯, ০২:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

মানকাডিং আউট করার সেই দৃশ্য। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত
মানকাডিং আউট করার সেই দৃশ্য। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত

আইপিএলে জস বাটলারকে মানকাডিং (রান আউট) করেছেন কিংস ইলিভেন পাঞ্জাবের স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

রাজস্থান রয়্যালসের রান যখন এক উইকেটে ১০৮। উইকেটে বোলিং প্রান্তে ছিলেন ৪৩ বলে ৬৯ রান করা জস বাটলার। রাজস্থান রয়্যালসের বোলারদের তুলোধুনা করা এ ব্যাটসম্যান বোলার অশ্বিন রানারআপ নেয়ার সময় সামান্য এগিয়ে যান।

আর তাই দেখে অশ্বিন সুযোগ হাতছাড়া করতে চাননি। বল ব্যাটসম্যান স্যামসনের দিকে না ছুঁড়ে হঠাৎ রানারআপ থামিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দেন অশ্বিন।

বিষয়টি নিয়ে ফিল্ড আম্পায়ারও দোটানায় ভুগেন। অতঃপর তিনি শরণাপন্ন হন টিভি আম্পায়ারের ওপর। আর টিভি আম্পায়ার বাটলারকে রান আউট ঘোষণা করেন। মানকাডিং (রানআউট) এ নিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে নতুন বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

ভেঙে দেন

কিংস ইলিভেন পাঞ্জাবের দেওয়া ১৮৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করছিল রাজস্থান রয়্যালস। ত্রয়োদশ ওভারের ঘটনা। দুর্দান্ত ব্যাটিং করছিলেন জস বাটলার। তার ব্যাটে চড়ে জয়ের স্বপ্ন দেখছিল রাজস্থান রয়্যালস।

আজিঙ্কা রাহানের সাথে ৭৮ রানের জুটি গড়ার পর সঞ্জু স্যামসনকে নিয়ে বাটলার যোগ করেন ৩০ রান। ১০ চার আর ২ ছক্কা হাঁকানো জস বাটলার অপরাজিত ছিলেন ৬৯ রান করে।

পঞ্চম বল করার সময় নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা জস বাটলার এগিয়ে যাচ্ছিলেন। সেই সুযোগে স্টাম্প ভেঙে রান আউট করেন জস বাটলারকে। মানকাডিং হিসেবে পরিচিত এ আউট। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের এ কাজের পর টুইটারে এ নিয়ে প্রতিক্রিয়ার ঝড় বইছে।

বিশ্বসেরা ক্রিকেটারদের প্রতিক্রিয়া

নিউজিল্যান্ডের অন্যতম সাবেক জনপ্রিয় ব্যাটসম্যান স্কট স্টাইরিশ বলেন, আমি এখানে বাটলারের (স্বাভাবিক এগিয়ে যাওয়াকে) ভুল দেখি না। এটি দিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আমার মতে, এটা টিভি আম্পায়ারের আউট দেয়া উচিত হয়নি।

দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সেরা বোলার ডেল স্টেইন এ আউটের তীব্র বিরোধিতা করে বলেন, এ আউটের মাধ্যমে ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট হলো। এটা দিয়ে অশ্বিন কখনও কোনো পুরস্কার জিততে পারবে না।

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেনওয়ার্ন বলেন, একজন অধিনায়ক ও একজন ব্যক্তি হিসেবে অশ্বিনের কাছ থেকে এমন আউট খুবই দুঃখজনক। সব অধিনায়কই এ বিষয়ে একমত যে, এটি এটা ক্রিকেটের চেতনাবিরোধী কাজ। আম্পায়ারদের উচিত ছিল এটি ডেড বল ঘোষণা করা। এটা আইপিএলের জন্য সুখকর নয়।

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মর্গান বলেন, আইপিএলে যা দেখেছি তা আমি বিশ্বাস করতে চাই না। এটা আগামী প্রজন্মের ক্রিকেটারদের জন্য ভয়ংকর উদাহরণ হবে। আমার মনে হয়, অশ্বিন এজন্য অনুশোচনা করবে।

তবে এ আউটকে ম্যাগনোলিয়া ফুলের সঙ্গে তুলনা করেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি অফ স্পিনার সাকলাইন মুসতাক।

টুইটারে তিনি ম্যাগনোলিয়া ফুলের বেশ কয়েকটি সুন্দর ছবি শেয়ার দেন। যাতে লেখা ছিল ‘এটি ফুল না সুন্দর ছোট্ট পাখি?’

অর্থাৎ, এটিকে কেউ বলবে পাখি আর কেউ বলবে ফুল।

ভারতীয় ক্রীড়া বিশ্লেষক আকাশ চোপড়া অশ্বিনকে সমর্থন করে টুইটবার্তায় বলেছেন, ‘খেলার নৈতিক স্পিরিটের চেয়ে আইনটা বড়। এটা কোনো অন্যায় হয়নি। এটা কোনো প্রতারণাও নয়।’

তার ওই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া প্রথম ঘণ্টায়ই ৭ শতাধিক রিটুইট হয়। এর বেশিরভাগই নেতিবাচক হিসেবে মন্তব্য করেছেন। অতুল তাওয়ারি নামের একজন বলেন, এ আউটটা কীভাবে সঠিক? আমার মতে, পাঞ্জাব যখন উইকেট পাচ্ছিল না, তখন এই পদ্ধতির বিকল্প ছিল না। এটা অশ্বিনের জন্য লজ্জা।

ঘটনাপ্রবাহ : আইপিএল-২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×