হাসনাইনকেই নতুন বল দেয়া উচিত ছিল পাকিস্তানের: ওয়াকার

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২:২০ | অনলাইন সংস্করণ

হাসনাইন,

প্রথম ওয়ানডেতে খেয়েছে নাকানিচুবানি। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কোনো প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি পাকিস্তান। ৮ উইকেটে হেরেছে শোয়েব মালিক বাহিনী। নেপথ্যে স্বাগতিকদের পেস আক্রমণকে সঠিকভাবে ব্যবহার না করতে পারার কথা বলছেন ওয়াকার ইউনিস।

পিএসএল দিয়ে নজর কেড়েছেন মোহাম্মদ হাসনাইন। ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাকিস্তান স্কোয়াডে। অবশেষে জাতীয় দলের হয়েও অভিষেক হয়েছে তার। গেল ম্যাচে ছিলেন তিনি। পাকিস্তান কিংবদন্তি পেসারের মতে, হাসনাইনকেই নতুন বল দেয়া উচিত ছিল মালিকের।

বল পুরনো হওয়ার পর বোলিংয়ে আসেন হাসনাইন। এসেই ত্রাস ছড়ান। আন্তর্জাতিক ম্যাচের প্রথম বলেই দুর্দান্ত বাউন্সারে অ্যারন ফিঞ্চের নাভিশ্বাস তোলেন তিনি। ৮৯ মাইল গতির বাউন্সারটি ইনফর্ম ব্যাটসম্যানের হেলমেট ঘেঁষে চলে যায়। এতে ধারাভাষ্যকক্ষে থাকা ওয়াকারে মুখে হাসি ফুটে। তিনি মন্তব্য করেন, আমার পছন্দ হয়েছে। ওকেই নতুন বল দেয়া উচিত ছিল।

নতুন বল যে দেয়া উচিত ছিল সেটা একটু পরে আবারও বুঝিয়েছেন হাসনাইন। ঘণ্টায় ছোড়েন ৯১ মাইল গতির বল। সেটা আঘাত হানে ফিঞ্চের হেলমেটে। সেই ধাক্কা সামলে হেলমেটও বদলাতে হয় অজি বিধ্বংসী ওপেনারকে।

প্রথম ম্যাচে অবশ্য কোনো উইকেট পাননি হাসনাইন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিষেকে পুরো বোলিং কোটাও পূরণ করা হয়নি। ৯ ওভার বল করে ৫৪ রান দিয়ে থেকেছেন উইকেটশূন্য। তবে শারজার মরা উইকেটে একের পর এক ভয়ংকর বাউন্সার ও দুর্দান্ত কিছু ইয়র্কার দিয়ে সমর্থকদের মন জয় করেছেন তিনি। ১৮ বছর বয়সেই রিভার্স সুইংও আয়ত্তে নিয়ে ফেলেছেন প্রতিশ্রুতিশীল ও সম্ভাবনাময়ী এ পেসার।

ক্রিকেট বিশ্লেষকরা বলছেন, আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের তুরুপের তাস হতে পারেন হাসনাইন। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের বাকি তিন ম্যাচে ভালো করতে পারলে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেও জায়গা করে ফেলবেন এ গতিতারকা। মাত্র দলে আসা এ বোলারকে নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক শোয়েব মালিকও।

তিনি বলেন, হাসনাইন নিয়মিত ১৪৫ কিলোমিটারের ওপরে গতি তুলতে পারে। সেটা ভয়ংকর ক্ষমতা। সে খুবই প্রতিভাবান বোলার। আমরা অনুশীলন ও পিএসএলে দেখেছি। ওকে খুব ভালোভাবেই নজরে রাখছি। ওর উন্নতি পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য খুব ভালো একটা দিক।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×