এক হাতেই ছক্কা মেরে বল হারালেন ভিলিয়ার্স (ভিডিও)

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৩:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

এক হাতেই ছক্কা মারার অনন্য নজির স্থাপন করলেন এবিডি ভিলিয়ার্স। ছবি: টুইটার

আইপিএলে অভিনব পদ্ধতিতে ছক্কা হাঁকিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান এবিডি ভিলিয়ার্স। পাঞ্জাবের ভারতীয় বোলার মোহাম্মদ শামিকে তিনি ওই ছক্কা হাঁকিয়ে নতুন আলোচনার খোরাক দিয়েছেন।

১৯তম ওভারের ৪র্থ বলে আলোচিত ওই ছক্কাটি তিনি এক হাতেই ছক্কা হাঁকান। আর এ ভিডিওটি স্মৃতি হিসেবে রেখে দিয়েছে আইপিএলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট। এর ক্যাপশানে তারা লেখেছে, ‘এক হাতেই (বল) মাঠের বাইরে, এবিডি স্টাইল।’

এদিকে গেইলদের পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে প্রথম ব্যাট করতে নামা ভিলিয়ার্সরা ব্যাঙ্গালুরো শেষ তিন ওভারে ‘মহা তাণ্ডব’ চালিয়েছে। ১৮তম ওভারে ১৬ রান, ১৯তম ওভারে ২১রান ও ২০তম ওভারে নিয়েছে ২৭রান। এর মাঝে কোনো উইকেট হারাতে হয়নি ব্যাঙ্গালুরোকে।

অর্থাৎ, এবিডি ভিলিয়ার্স ও মার্কু স্টইনিস মিলে নিয়েছেন শেষ তিন ওভারে ৬৪ রান।

বিপরীতে পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে বোলিংয়ে ওই শেষ তিন ওভারে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখিয়েছে কোহলির নেতৃত্বাধীন দলটি। তারা ১৮তম ওভারে দিয়েছে ৬ রান। ১৯তম ওভারে দিয়েছে মাত্র ৩রান ও সঙ্গে শিকার করেছে ২ উইকেট। ২০তম ওভারে ৯রান দিয়ে দুই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছে। অর্থাৎ, শেষ তিন ওভারে তারা ১৮ রানে ৪ উইকেট শিকার করেছে।

প্রসঙ্গত, এবি ডি ভিলিয়ার্সের ব্যাটিং তাণ্ডবের ম্যাচে জয় পেয়েছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। চলতি আইপিএলের ৪২তম ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ১৭ রানে জয় পায় বেঙ্গালুরু।

এই জয়ের পরও ১১ ম্যাচে আট পয়েন্ট নিয়ে ৮ দলের মধ্যে টেবিলের সাতে পড়ে আছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন দলটি। তবে হেরে গেলেও ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম পজিশনে আছে ক্রিস গেইলদের পাঞ্জাব। ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন চেন্নাই সুপার কিংস।

বুধবার বেঙ্গালুরুর এম চেন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করে স্বাগতিকরা। আগে ব্যাট করতে নেমে ৮১ রানের ব্যবধানে বিরাট কোহলি, পার্থিব প্যাটেল, মঈন আলী ও অষোকদীপ নাথের উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় বেঙ্গালুরু।

দলের এমন ব্যাটিং বিপর্যয়ের ম্যাচে একাই লড়াই করে যান ভিলিয়ার্স। তাকে সঙ্গ দেন মার্কু স্টইনিস। পঞ্চম উইকেটে তারা ১২১ রানের জুটি গড়েন। এই জুটিতেই দলকে পৌঁছে দেন (২০২/৪) রানের পাহাড়ে।

৪৪ বল খেলে সাতটি চার ও তিনটি চারের সাহায্যে ৮২ রান করে অপরাজি থাকেন বেঙ্গালুরু দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটিং দানব এবি ডি ভিলিয়ার্স। এছাড়া ৩৪ বলে তিন ছয় ও দুটি চারের সাহায্যে ৪৬ রান করে অপরাজিত থাকেন মার্কু স্টইনিস।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে পাঞ্জাব। ইনিংসের প্রথম ২০ বলে ৪২ রানের জুটি গড়তেই আউট হন ড্যাশিং ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ১০ বলে ২৩ রান করে আউট হন গেইল।

দ্বিতীয় উইকেটে মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে সঙ্গে নিয়ে ফের ৫৯ রানের জুটি গড়েন লোকেশ রাহুল। এরপর উমেশ যাদব ও নাদীপ শাইনির গতির মুখে পড়ে সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে পাঞ্জাব।

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পতনের কারণে দলের পরাজয় এড়ানো সম্ভব হয়নি। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৬ রান করেন নিকোলাস পুরান। এছাড়া ৪২ রান করেন লোকেশ রাহুল। বেঙ্গালুরুর হয়ে উমেশ যাদব তিন আর শাইনি নেন ২ উইকেট।