‘আমরা আমাদের কাজ করি, মিডিয়া মিডিয়ার কাজ করুক’

  স্পোর্টস রিপোর্টার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

তামিম ইকবাল

শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ পরাজয়ের পর সমালোচনা হচ্ছে খালেদ মাহমুদ সুজনের দায়িত্ব নিয়েও। মিডিয়ার এই সমালোচনাকে নোংরা বলছেন জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক। তার দাবি, এই সমালোচনারকারণেই বাংলাদেশের ক্রিকেট আটকে আছে। এজন্য দেশের ক্রিকেটের সঙ্গে আর থাকতে চান না জাতীয় দলের এই টেকনিক্যাল ডিরেক্টর।

মিডিয়ার প্রতি খালেদ মাহমুদ সুজনের এমন ক্ষোভ নিয়ে জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবাল বলেন, এখন মিডিয়াও খুবই ইমপোরটেন্ট পার্ট। আমরা আমাদের কাজ করি, মিডিয়া মিডিয়ার কাজ করুক।আমাদের নিজেদের কাজেই মনোযোগ থাকা উচিত।

হাথুরুসিংহে চলে যাওয়ার পর খালেদ মাহমুদ সুজনকে ‘টেকনিক্যাল ডিরেক্টর’ হিসেবে আপৎকালীন কোচের দায়িত্ব দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়কের অধীনে ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বাজেভাবে পরাজিত হয় বাংলাদেশ দল। এমন পারফরম্যান্সের ক্রিকেটারদের পাশাপাশি আপৎকালীন কোচের কাজ চালিয়ে যাওয়া সুজনের দায়িত্বজ্ঞান নিয়েও বিস্তর সমালোচনা হচ্ছে।

সেই সমালোচনার মুখে ভেঙে পড়েছেন জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়ক। মিডিয়ার এই সমালোচনা সহ্য করতে না পেরে ক্রিকেট থেকেই সড়ে দাঁড়ানোর আভাস দিয়েছেন তিনি।

মিডিয়ার প্রতি সুজনের এমন ক্ষোভ নিয়ে জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবাল বলেন, উনি কী বলেছেন ওই বিষয়ে আমার না যাওয়াই ভালো হবে। মিডিয়ার আউটবার্স্ট আমি এতটুকু বলতে পারি। সমালোচনা কমবেশি সব জায়গায় হয়। আমার কাছে দল হিসেবে, ম্যানেজমেন্ট হিসেবে স্ট্রং থাকি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter