চোখ-কান খোলা মোস্তাফিজের

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৪ মে ২০১৯, ১৬:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

মোস্তাফিজ,

আবির্ভাবেই তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। বিশ্ব ক্রিকেটে ফেলে দিয়েছিলেন হইচই। প্রথম দিকে তার বোলিং বৈচিত্র্যে বোকা বনে যেতেন বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানরাও। সময়ের ব্যবধানে মোস্তাফিজের সাফল্যে জোয়ার ভাটা আসে। কিছুদিন ধরে উইকেট খরায় ভুগছিলেন এই কাটার।

নিজের অস্ত্র স্লোয়ার, কাটার কিংবা ইয়র্কার দিয়েও তেমন কার্যকরী হতে পারছিলেন না মোস্তাফিজ। তার বোলিং অ্যাকশন ও কৌশল ব্যাটসম্যানরা রপ্ত করে ফেলেছেন বলে কথা উঠে।

এগুলো মোস্তাফিজের কানেও গেছে। অবশেষে দীর্ঘদিন পর ফের তাকে পুরনো ছন্দে দেখা গেছে। ত্রিদেশীয় সিরিজে সোমবার ওয়েস্ট ইন্ডিজদের বিপক্ষে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন ফিজ। ভবিষ্যতেও চোখ-কান খোলা রেখে ছন্দ ধরে রাখতে চান দেশের এ পেস সেনসেশন।

উইন্ডিজদের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে মোস্তাফিজ বলেন, নতুন একজন বোলার এলে তার সম্পর্কে অনেকে জানে না। হয়তো আমার সম্পর্কেও জানত না। এখন অনেকে জানে যে, আমি এটা করি বা ওটা করি। আগে বেশিরভাগ সময় আমার বলে ব্যাটসম্যানরা ক্যাচ হয়ে যেত। এখনও হয়, তবে তা মারতে গেলে। আগে মারতে না গেলেও উইকেট পেতাম।

মোস্তাফিজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় ধাক্কা হয়ে আসে কাঁধের ইনজুরি। উঠতি সময়ে কাউন্টি দল সাসেক্সের হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট খেলতে গিয়ে এর কবলে পড়েন তিনি। এজন্য শল্যবিদের ছুরি-কাঁচির নিচে যেতে হয় তাকে।

প্রায় ছয় মাস নির্বাসনে থাকার পর ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরেন ফিজ। ইনজুরি থেকে ফেরার পর নিজেকে হারিয়ে খুঁজছিলেন তিনি। আগের সেই ধার খুঁজে পেতে যথেষ্ট সময় নিয়েছেন। তার বিশ্বাস, ইনজুরি কাটিয়ে দেশের মাটিতে খেলতে পারলে দ্রুত চেনা ছন্দে ফিরতে পারতেন।

মোস্তাফিজ বলেন, শুরুতে আমি দেশে খেলেছি। ইনজুরির পর বিদেশে বেশি খেলেছি। দেশের উইকেট হলে আগের মোস্তাফিজই বেশিরভাগ সময় পাওয়া যেত। ওখানে বল-টল ধরে, ঘুরে।

ঘটনাপ্রবাহ : ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়ারল্যান্ড-২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×