শিরোপা জয় নিয়ে মাশরাফির বক্তব্য

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৮ মে ২০১৯, ০৫:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

মাশরাফি বিন মুর্তজা
মাশরাফি বিন মুর্তজা। ফাইল ছবি

আগের ৬ ফাইনালে হেরে যাওয়ার পর অনেকেই ধরে নিয়েছিল ফাইনাল বাংলাদেশের জন্য ‘অপয়া’। কিন্তু সপ্তমবার ফাইনালে এসে লাকি সেভেন ধরা দিয়েছে বাংলাদেশের কাছে।

ত্রিদেশীয় সিরিজে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দেশই ছিল টাইগারদের শক্ত প্রতিপক্ষ। তাই অভিনব অর্জনের আনন্দের মাত্রাটা যেন একটু বেশিই। ‘লাকি সেভেনে’ অর্থাৎ সপ্তম ফাইনালে অর্জিত এই সাফল্য দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যাত্রা শুরু হল জানিয়ে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রত্যাশা, বাংলাদেশ এই সাফল্যযাত্রা অব্যাহত রাখবে।

ম্যাচ শেষে মাশরাফি বলেন, অসাধারণ এক অনুভূতি। কেবল শুরু হল, আশা করি ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। দীর্ঘদিন ধরে আমরা জিততে পারিনি। ৬ বার ফাইনালে গিয়ে হেরেছি। সপ্তমবার এসে সফল হলাম। এটা দারুণ দলীয় প্রচেষ্টা।’

‘উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য বেশ ভালো ছিল, আমরা বোলিং করার সময়ই বুঝতে পেরেছিলাম। সৌম্য ও তামিম ভালো শুরু এনে দিয়েছিল। ম্যাচ জয়ের ভিত্তি তারাই গড়ে দিয়েছিল। মাঝখানে মুশফিক বেশ ভালো ব্যাট করেছে। মোসাদ্দেক ও রিয়াদ দারুণভাবে শেষ করেছে।’

ক্যারিবীয়দের বড় সংগ্রহ বাংলাদেশের কাছে আরও বড় হয়ে উঠেছিল ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতির মারপ্যাঁচে। তবুও টাইগাররা ম্যাচ জিতেছেন ৭ বল হাতে রেখেই। মাশরাফি এই ব্যাটিং থেকে শিক্ষা নিয়ে বিশ্বকাপেও কাজে লাগাতে চান অভিজ্ঞতাটুকু।

তার ভাষ্য, ‘অবশ্যই বিশ্বকাপ আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে। সেখানে উইকেট আরও ফ্ল্যাট থাকবে। বোলারদের জন্য অনেক চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। আজকের ম্যাচ আমাদের বড় লক্ষ্য তাড়া করায় আত্মবিশ্বাস দেবে, বিশেষ করে এমন কোনো ম্যাচে যখন পরে ব্যাট করতে হবে।’

স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড সিরিজে জিততে পারেনি একটি ম্যাচও, অন্যদিকে বাংলাদেশ একটি ম্যাচও হারেনি। আয়ারল্যান্ডে পাওয়া নিজেদের প্রথম শিরোপার রোমাঞ্চিত ছোঁয়ার কারণেই হয়ত দেশটিকে নিয়ে ‘নড়াইল এক্সপ্রেসের’ বাড়তি উচ্ছ্বাস।

মাশরাফি জানান, ‘আয়ারল্যান্ড সুন্দর একটি দেশ, ক্রিকেটের জন্য। বিশেষ করে আপনি যখন জয়ের দেখা পান, সবকিছুই ভালো লাগে। অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়া সবসময়ই ভালো অনুভূতি এনে দেয়।’

ঘটনাপ্রবাহ : ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়ারল্যান্ড-২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×