আকাশ চোপড়ার বাজি নেতা মাশরাফি

প্রকাশ : ২৩ মে ২০১৯, ১৪:০০ | অনলাইন সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বের ভার নেয়ার পরই পাল্টে গেছে বাংলাদেশ। তার অধীনে উত্তরোত্তর দলের উন্নতি হচ্ছে। বিশ্বক্রিকেটে নবপরাশক্তি হিসেবে পরিণত হচ্ছেন টাইগাররা। নেতা মাশরাফির অনন্য অধিনায়কত্বে এখন যেকোনো প্রতিপক্ষের মধ্যে ভীতি সঞ্চার করেন তারা।

দুয়ারে কড়া নাড়ছে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ-২০১৯। ক্রিকেটের আসন্ন বৈশ্বিক আসরে বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিলে প্রতিপক্ষ দলগুলো ভুল করবে। ঠিক এমনটিই মনে করছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া। লাল-সবুজ জার্সিধারীদের ব্যাপারে বিশ্বমঞ্চে পারফর্ম করতে যাওয়া বাকি দলগুলোকে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি। তার এমন সতর্কবার্তার নেপথ্যে মাশরাফিই।

একজন আদর্শ নেতার যত গুণ থাকা প্রয়োজন, ততই রয়েছে মাশরাফির মধ্যে। তিনি যেন জিয়নকাঠি। তার ছোঁয়ায় বদলে যান সতীর্থরা। পরিবর্তন হয়ে যায় তাদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ। সেই কারণে ম্যাশের নেতৃত্বে নিয়মিত ভিন্ন বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি দেখছে ক্রিকেটবিশ্ব।

স্বাভাবিকভাবেই টাইগার দলপতির ভূয়সী প্রশংসা করছেন ক্রিকেটের রথী-মহারথীরা। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন আকাশ চোপড়া। তিনি বলেন, এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিলে প্রতিপক্ষরা ভুল করবে। তাদের রয়েছে নেতা মাশরাফি। কয়েকবার অপারেশনের কারণে তার বলে গতি কমে গেছে। তবে অভিজ্ঞতা দিয়ে বাজিমাত করছে। দলের প্রয়োজনে উইকেট তুলে নেয়। সতীর্থদের লড়তে অনুপ্রাণিত করে। সে টপ ক্লাস ক্রিকেটার। ও একজন চিন্তাবিদ দলনায়ক। সময়মতো যে সিদ্ধান্ত নেয়া প্রয়োজন, ঠিক সেটিই নেয়।

ইউটিউবে নিয়মিত ক্রিকেট নিয়ে নিজস্ব বিশ্লেষণ উপস্থাপন করেন আকাশ। নিজ দেশ ভারত, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান ছাড়া বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা অন্য দলগুলোকে নিয়ে নিজের মূল্যায়ন তুলে ধরেন তিনি। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড নিয়ে কথা বললেন জনপ্রিয় এ ধারাভাষ্যকার। সেখানেই এসব কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত যত সাফল্য পেয়েছে অধিকাংশই মাশরাফির অধীনে। তার অসামান্য নেতৃত্বে গেল বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলে টাইগাররা। ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেলে তারা। গেল বছর এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলে। সবশেষ আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ইংল্যান্ডে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরে সেই সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় মাশরাফি বাহিনী। এটিই হতে যাচ্ছে নড়াইল এক্সপ্রেসের শেষ বিশ্বকাপ।