কোহলিদের ‘হত্যা’ করবেন সরফরাজরা!
jugantor
কোহলিদের ‘হত্যা’ করবেন সরফরাজরা!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৫ জুন ২০১৯, ১৬:৪৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

অবশেষে এসে গেল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। রোববার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-পাকিস্তান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বিদের মোকাবেলায় প্রস্তুত আনপ্রেডিক্টেবল দলটি। সেই সঙ্গে হুংকার ছুড়েছেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তিনি বলেছেন, কোহলিদের ‘হত্যার’ উদ্দেশে ময়দানি লড়াইয়ে নামবে তারা।

বিশ্বকাপে নাজুক অবস্থায় পাকিস্তান। চার ম্যাচে জোড়া হার বরণ করেছে দলটি। সবশেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কয়েকটি গুরুতর ভুলের কারণে হেরেছে তারা। এরপর সমালোচনার মুখে পড়েন সরফরাজ। তবে তাতে ভ্রুকুটি তার।

পর পরই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এক কলামে তিনি লেখেন, আমরা সবাই জানি, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি কত বড়। সেই মহারণের জন্য আমরা সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নেবো। এটি একটি নতুন ম্যাচ, খেলা হবে নতুন ভেন্যুতে। সুতরাং, শুরুটা দুর্দান্ত করতে হবে আমাদের এবং হত্যার উদ্দেশে মাঠে নামতে হবে।

তিনি বলেন, দলের ওপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে। আমি নিশ্চিত, আমরা ঘুরে দাঁড়াব।

বিশ্বকাপটা যাচ্ছেতাই শুরু হয় পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরে যায় তারা। পরের ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চমকে দেন সরফরাজরা। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ভেসে যায়। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ লড়াই করেছে তারা। জেতার খুব কাছে চলে গিয়েছিল এশিয়ার ক্রিকেট পরাশক্তি।

ফলে আত্মবিশ্বাসে কমতি নেই পাকিস্তানের। ইতিবাচক ক্রিকেট খেলে সামনের সব ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে চায় সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দল। প্রথম টার্গেট ভারতবধ।

কোহলিদের ‘হত্যা’ করবেন সরফরাজরা!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৫ জুন ২০১৯, ০৪:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবশেষে এসে গেল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। রোববার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-পাকিস্তান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বিদের মোকাবেলায় প্রস্তুত আনপ্রেডিক্টেবল দলটি। সেই সঙ্গে হুংকার ছুড়েছেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তিনি বলেছেন, কোহলিদের ‘হত্যার’ উদ্দেশে ময়দানি লড়াইয়ে নামবে তারা।

বিশ্বকাপে নাজুক অবস্থায় পাকিস্তান। চার ম্যাচে জোড়া হার বরণ করেছে দলটি। সবশেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কয়েকটি গুরুতর ভুলের কারণে হেরেছে তারা। এরপর সমালোচনার মুখে পড়েন সরফরাজ। তবে তাতে ভ্রুকুটি তার।

পর পরই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এক কলামে তিনি লেখেন, আমরা সবাই জানি, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি কত বড়। সেই মহারণের জন্য আমরা সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নেবো। এটি একটি নতুন ম্যাচ, খেলা হবে নতুন ভেন্যুতে। সুতরাং, শুরুটা দুর্দান্ত করতে হবে আমাদের এবং হত্যার উদ্দেশে মাঠে নামতে হবে।

তিনি বলেন, দলের ওপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে। আমি নিশ্চিত, আমরা ঘুরে দাঁড়াব।

বিশ্বকাপটা যাচ্ছেতাই শুরু হয় পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরে যায় তারা। পরের ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চমকে দেন সরফরাজরা। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ভেসে যায়। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ লড়াই করেছে তারা। জেতার খুব কাছে চলে গিয়েছিল এশিয়ার ক্রিকেট পরাশক্তি।

ফলে আত্মবিশ্বাসে কমতি নেই পাকিস্তানের। ইতিবাচক ক্রিকেট খেলে সামনের সব ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে চায় সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দল। প্রথম টার্গেট ভারতবধ।