সেই ভিডিও দেখে অঝোরে কাঁদলেন সরফরাজের স্ত্রী

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৭ জুন ২০১৯, ১১:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

সেই ভিডিও দেখে অঝোরে কাঁদলেন সরফরাজের স্ত্রী
স্ত্রী সৈয়দা খুশবখতের সঙ্গে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

কিউইদের ৬ উইকেটে হারিয়ে সেমিতে খেলার স্বপ্ন জিইয়ে রাখল পাকিস্তান। গতকাল এজবাস্টনে যেন '৯২ সালের বিশ্বকাপজয়ী দল পাকিস্তানকে দেখল বিশ্ব। পয়েন্ট ৭ নিয়ে এখন দুর্বার গতিতে এগোচ্ছেন তারা।

অথচ দ. আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছিল পাকিস্তান।

নিজেদের মেলেই ধরতে পারছিলেন না তারা। ফখর, বাবর ও ইমামের মতো দলের সেরা ব্যাটসম্যানরা ভুগছিলেন রানখরায়।

এ নিয়ে বেশ বিপাকে ছিলেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তার এই ব্যর্থতাকে পুঁজি করে দেশটির সমর্থকরা তাকে নিয়ে নানা ট্রোল, মিম ও বিদ্রূপে মেতে ওঠেন।

বিশেষ করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে শোচনীয় হার মেনে নিতে পারেননি পাক সমর্থকরা। সেই ম্যাচে উইকেটের পেছনে ক্লান্ত সরফরাজের হাই তোলা দৃশ্য নিয়েও কটূক্তিতে ভরে যায় ক্রিকেটবিশ্ব।

সেই পরাজয়ের পর গত ২২ জুন স্ত্রী-সন্তানের সামনেই পাক সমর্থকের হাতে নাজেহাল হন সরফরাজ।

সেদিন স্ত্রী-সন্তানসহ ইংল্যান্ডের একটি শপিংমলে গিয়েছিলেন সরফরাজ। সেখানে সরফরাজকে কটূক্তি করতে একেবারে ফেসবুক লাইভে চলে আসেন এক সমর্থক।

লাইভে দেখা গেছে, সন্তানকে কোলে নিয়ে শপিংমলে হাঁটছিলেন সরফরাজ। এ সময় পেছন থেকে সরফরাজকে একটু দাঁড়াতে বলেন ওই সমর্থক।

সরফরাজ তার কথায় সাড়া দিলে তিনি প্রশ্ন করেন, ‘ভাই আপনি শুয়োরের মতো মোটা কেন? আপনি পাকিস্তানের নাম উজ্জ্বল করেছেন।’

এমন প্রশ্নে বিব্রত হয়ে কোনো জবাব না দিয়ে চলে যেতে থাকলে স্ত্রী-সন্তানের সামনেই সরফরাজকে অপমানসূচক ভাষা ব্যবহার করেন ওই সমর্থক।

এ সময় ওই সমর্থককে বলতে শোনা যায়, ডায়েটিং কর। একটু কম করে খাওয়াদাওয়া কর।

ভিডিওটি প্রকাশের পর পরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

ছেলের সামনে স্বামীর অপমান মেনে নিতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়কের স্ত্রী সৈয়দা খুশবখত। কেবল তাই নয়; স্বামীকে অপমান করার সেই ভিডিওটি দেখে রীতিমতো কেঁদেছেন তিনি।

সম্প্রতি আইসিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটিই জানিয়েছেন সরফরাজ।

ওই সাক্ষাৎকারে কান্নারত স্ত্রীকে সামলে নেয়ার কথা জানান পাক অধিনায়ক। বিষয়টিকে সাধারণভাবে নিতে বলেছিলেন স্ত্রীকে। যদিও স্ত্রীর আবেগ তা মানছিল না। অঝোরে কেঁদেই চলছিলেন।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে সরফরাজ নিজেই আপ্লুত হয়ে পড়েন। ক্যামেরার সামনে মাথা নিচু করে থাকেন।

সরফরাজ বলেন, ‘আমি যখন হোটেলে ফিরে আসি, তখন দেখি আমার স্ত্রী ওই ভিডিও দেখে ফেলেছে এবং কান্না করছে। আমি তাকে বোঝানোর চেষ্টা করি, এটি একটি ভিডিও মাত্র। সিরিয়াস কিছু নয়। এটি আমাদের জীবনেরই একটি অংশ। সমর্থকদের এমন কাণ্ড অনেকের বেলায় হয়ে থাকে। আমিও এর বাইরের কেউ নই।

তিনি বলেন, বিশ্বকাপের মতো আসরে যখন আমরা ভালোভাবে পারফর্ম করতে পারব না, তখন আমাদের এসব বিদ্রূপ সহ্য করে যেতেই হবে। কথা দিয়ে নয়, ব্যাটে-বলে এসবের জবাব দিই আমরা।’

সরফরাজের সেই সাক্ষাতকারের টুইটার লিংক:

সরফরাজকে অপমানের ওই ঘটনাটিকে একেবারেই মেনে নিতে পারেননি সাবেক পাক ক্রিকেটাররা। দেশটির অনেক ভক্তও সেই সমর্থকের এমন কটূক্তির সমালোচনা করেছেন।

তারা জানিয়েছেন, একজন পাকিস্তানি হয়ে নিজ দেশের ক্রিকেট অধিনায়ককে এভাবে অপমান কখনই করতে পারেন না।

এটিকে সেই ভক্তের চরম দৃষ্টতা বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক তারকারা।

নেটিজেনদের এমন সব কঠোর সমালোচনার পর অবশ্য দেশবাসী ও সরফরাজের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন ওই ভক্ত।

ভিডিওটি পরে তিনি মুছে দেন। এ ছাড়া ভিডিওটি তিনি আপলোড করেননি বলে দাবি করেন সেই সমর্থক।

সেই মন্তব্যের পর সরফরাজের কাছেই ক্ষমা চেয়েছিলেন বলে দাবি করেন তিনি।

সমালোচিত সেই ভিডিওটি দেখুন-

ঘটনাপ্রবাহ : আইসিসি বিশ্বকাপ-২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×