পাকিস্তানকে আবার কে কোণঠাসা করল?

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৮ জুন ২০১৯, ২০:১২:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

পরাজয়ের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখছে পাকিস্তান। ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানকে চাপে না ফেলার জন্য অন্যান্য দলকে সতর্ক করে কিংবদন্তি ক্রিকেটার শোয়েব আখতার টুইটবার্তায় বলেছিলেন, পাকিস্তানকে কখনো কোণঠাসা করো না। আমাদের কোণঠাসা করলে আমরা বাঘ হয়ে উঠি। অভিনন্দন বাবর আজমদের, তারা ভালো করেছে।

শোয়েব আখতারের টুইটের পর ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া রিটুইটে বলেন, পাকিস্তানকে আবার কে কোণঠাসা করল ভাই! এটা তোমারই দল, যারা নিজেদের খেলার কারণে কোণঠাসা হয়ে পড়ে। সবসময় কিন্তু পাকিস্তান এমন অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়াতেও পারেনি।

১৯৯২ সালের মতো এবারের বিশ্বকাপেও প্রথম দিকে পাঁচ ম্যাচের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ (হার), ইংল্যান্ড (জয়), শ্রীলংকা (পরিত্যক্ত) অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের বিপক্ষে হেরে কঠোর সমালোচনায় পড়ে যায় পাকিস্তান।

প্রথম পাঁচ ম্যাচে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায় পড়ে যাওয়া দলটি এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের দৌঁড়ে টিকে রয়েছে।

সাত ম্যাচশেষে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচ নাম্বারে বাংলাদেশ। সমান পয়েন্ট নিয়ে ছয় নাম্বারে পাকিস্তান। এরপরই শ্রীলংকা। আর ছয় ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার অপেক্ষায় আছে ভারত। নিজেদেরসপ্তম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে ভারতের।

এরপর বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার বিপক্ষে ভারত হেরে গেলেও তাদের তেমন কোনো সমস্যা হবে না। তবে শ্রীলংকা অথবা বাংলাদেশ যদি ভারতের বিপক্ষেজিতে যায় তাহলেসেমিফাইনালে উঠতে সমস্যায় পড়ে যাবে পাকিস্তান।

এমন অবস্থায় পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার বাসিত আলী পাকিস্তানের একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে বলেছেন, ভারত কখনই চায় না, পাকিস্তান বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলুক। তাদের দুই ম্যাচ রয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। এই দুই ম্যাচে তারা খারাপ খেলে ম্যাচ ছেড়ে দিতে পারে। কারণ তারা আফগানিস্তানের বিপক্ষে কেমন খেলেছে, কীভাবে খেলেছে, তা তো সবাই দেখেছি।

বাসিত আলীর এমন মন্তব্যের পরই টুইট করেছেন শোয়েব আখতার। তিনি বলেছেন, চাপে ফেলে দিলে পাকিস্তান সব সময় বাঘ হয়ে ওঠে।

ঘটনাপ্রবাহ : আইসিসি বিশ্বকাপ-২০১৯

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত