অসময়ে জেগে উঠল দক্ষিণ আফ্রিকা

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৮ জুন ২০১৯, ২২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

হাশিম আমলা
শ্রীলংকাকে কঠিন সমীকরণে ফেলে দিয়ে সাজঘরে ফিরছেন হাশিম আমলা ও ফাফ ডু প্লেসিস। ছবি: সংগৃহীত

অসময়ে ঘুম ভাঙল দক্ষিণ আফ্রিকার। হাশিম আমলা-ফাফ ডু প্লেসিসরা এমন সময় জেগে উঠলেন যখন তাদের সেমিফাইনালের স্বপ্ন শেষ হয়েগেছে। বিশ্বকাপ থেকে আগেই বিদায় নিশ্চিত হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। সব হারিয়ে জয়ে ফিরল আফ্রিকা।

তবে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৯ উইকেটের বড় জয়ে তেমন কোনো লাভ হয়নি প্রোটিয়াদের। দক্ষিণ আফ্রিকার এই জয়ে বড় ক্ষতি হয়ে গেছে শ্রীলংকার। শুক্রবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জিতলে সেমিফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে যেতে পারত লংকানরা। কিন্তু পরাজয়ে সেমিফাইনালের খেলার স্বপ্ন ক্ষীণ হয়ে গেছে ১৯৯৬ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

নিজেদের পরের দুই ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি ইংল্যান্ডের দুই পরাজয়ের অপেক্ষায় থাকতে হবে শ্রীলংকাকে। শুধু তাই নয়! বাংলাদেশ ও পাকিস্তান যাতে পরের দুই ম্যাচের একটিতে হেরে যায় সেই আশায়ও বসে থাকতে হবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

শুক্রবার ইংল্যান্ডের চেস্টার লে স্ট্রিটের রিভারসাইড গ্রাউন্ডে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ডোয়েন পিটোরিয়াস এবং ক্রিস মরিসের গতির মুখে পড়ে ৪৯.৩ ওভারে ২০৩ রানে অলআউট হয় শ্রীলংকা।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে হাশিম আমলা ও ফাফ ডু প্লেসিসের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে ৭৬ বল হাতে রেখে ৯ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

লংকানদের বিপক্ষে মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে দলীয় ৩১ রানে লাসিথ মালিঙ্গার গতির শিকার হয়ে ফেরেন কুইন্টন ডি কক। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসকে সঙ্গে নিয়ে ১৭৫ রানের অনবদ্য জুটি গড়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন হাশিম আমলা।

দলের জয়ে ১০৫ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৮০ রান করেন আমলা। এছাড়া ১০৩ বলে ১০টি চার ও এক ছক্কায় ৯৬ রান করেন ফাফ ডু প্লেসিস।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপদে পড়ে শ্রীলংকা। ডোয়েন পিটোরিয়াস-ক্রিস মরিস ও কাগিসো রাবাদার গতির মুখে পড়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় লংকানরা।

আফ্রিকার বিপক্ষে প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারেননি দিমুথ করুনারত্নে, অভিষেক ফার্নান্দো, কুশল পেরেরা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। দলীয় ২১.৫ ওভারে ১০০ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর শেষ দিকে কুশল মেন্ডিস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ও থিসেরা পেরেরা দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে পারেননি।

তবে জীবন মেন্ডিস ও ইসুর উদানের ছোট এবং কার্যকরী ইনিংসে শেষ পর্যন্ত ৪৯.৩ ওভারে ২০৩ রান তুলতে সক্ষম হয় শ্রীলংকা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন পিটোরিয়াস ও ক্রিস মরিস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলংকা: ৪৯.৩ ওভারে ২০৩/১০ (কুশল পেরেরা ৩০, ফার্নান্দো ৩০, ডি সিলভা ২৪, কুশল মেন্ডিস ২৩, থিসেরা পেরেরা ২১, ইসুর উদান ১৭, জীবন মেন্ডিস ১৮; পিটোরিয়াস ৩/২৫, মরিস ৩/৪৬, রাবাদা ২/৩৬)।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৩৭.২ ওভারে ২০৬/১ (হাশিম আমলা ৮০*, ফাফ ডু প্লেসিস ৯৬*, কুইন্টন ডি কক ১৫)।

ফল: দক্ষিণ আফ্রিকা ৯ উইকেটে জয়ী।

ঘটনাপ্রবাহ : আইসিসি বিশ্বকাপ-২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×