সেরা হতে সাকিবকে আর কী করতে হতো?

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৯, ১৮:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপে উইকেট শিকারের পর সাকিব আল হাসানকে সতীর্থদের অভিনন্দন। ফাইল ছবি

সাকিব আল হাসানকে বঞ্চিত করে বিশ্বকাপের প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট দেয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে।

এ পুরস্কারটি পাওয়ার দাবিদার ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এবারের বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে ৬০৬ রান করার পাশাপাশি বল হাতেও শিকার করেন ১১ উইকেট।

অথচ ৫৭৮ রান করেই বিশ্বকাপে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার পেয়েছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়ামসন। 

এ নিয়ে বাংলাদেশি সমর্থকদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। কারণ, ব্যাটিং পারফরমেন্সের হিসেবে দিলেও তো উইলিয়ামসন সাকিবের পেছনে, আর বোলিং নৈপুণ্য ছিল সাকিবের বাড়তি পাওনা। তাই কপিল দেবসহ বিশ্বের কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা সাকিবকেই প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট বিবেচনা করেছিলেন।

সাকিবকে বিশ্বকাপে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার না দেয়ার বিয়ষটি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে ভারতের জনপ্রিয় দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা। তারা হেড লাইন করেছে- কতটা পথ পেরোলো বিশ্বকাপ সেরা ক্রিকেটার হওয়া যায়!

আনন্দবাজারের ওই প্রতিবেনে বলা হয়েছে, ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন অঙ্কের হিসেবে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের দলের প্রতি অবদান ২৮.৫৭ শতাংশ। অপরদিকে সাকিবের অবদান ২৮.২৫ শতাংশ। এখানেই পিছিয়ে পড়েন বাংলাদেশি এই ক্রিকেট তারকা।

তবে বিশ্বকাপে অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের নিরিখে বিচার করলে উইলিয়ামসনের থেকে অনেকটাই এগিয়ে সাকিব। কিউই অধিনায়কের মোট রান ৫৭৮। সেখানে ২টি শতরানসহ সাকিবের সংগ্রহ ৬০৬। বল হাতে ১১টি উইকেট নেওয়ার পরেও সেরা ক্রিকেটারের শিরোপা না পাওয়ায় প্রশ্ন জাগছে অনেকের মনে। টুর্নামেন্টের সেরা ক্রিকেটার হতে গেলে, তা হলে আর কী করতে হবে?
 
অবশ্য বিশ্বকাপ ফাইনালের ঠিক আগে পারফরম্যান্স বিবেচনায় সাকিব আল হাসান, জেসন রয়, রোহিত শর্মা, মিচেল স্টার্ক, ডেভিড ওয়ার্নার ও উইলিয়ামসন প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট হিসেবে সম্ভাব্য তালিকায় ছিলেন।

বিশ্বকাপে ৯ ম্যাচে রেকর্ড পাঁচটি সেঞ্চুরির সাহায্যে ৬৪৮ রান করেন ভারতীয় তারকা ওপেনার রোহিত শর্মা। তার চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে তিনটি সেঞ্চুরিতে ৬৪৭ রান করেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার।

মাত্র ৮ ম্যাচ খেলে দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচটি ফিফটির সাহায্যে ৬০৬ রান করেন সাকিব আল হাসান।