কাশ্মীর ইস্যুতে টুইটারে আফ্রিদি-গম্ভীরের বাগযুদ্ধ

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৬ অগাস্ট ২০১৯, ১৪:৫৪:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

তাদের ২২ গজের প্রতিদ্বন্দ্বিতা এখন অতীত। তবে শহীদ আফ্রিদি বনাম গৌতম গম্ভীরের লড়াই এখনও অব্যাহত। সুযোগ পেলেই একে অপরকে কটাক্ষ করেন তারা। কাশ্মীর ইস্যুতেও ব্যতিক্রম ঘটল না।

সোমবার এক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করেছে তারা। পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার প্রস্তাবও রাখা হয়েছে।

মোদি সরকারের এ সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ করেছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার আফ্রিদি। সোশ্যাল মিডিয়ায় জাতিসংঘের ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। টুইটারে বুমবুমখ্যাত ক্রিকেটার লিখেছেন, জাতিসংঘের নিয়মানুযায়ী কাশ্মীরিদের প্রাপ্য অধিকার দেয়া উচিত। যে স্বাধীনতা আমরা সবাই পেয়ে থাকি। যদি তা না হয়, তা হলে কেন এটি গঠিত হলো? জাতিসংঘ কী ঘুমাচ্ছে? কোনো প্ররোচনা ছাড়াই মানবিকতার বিরুদ্ধে এখানে হিংসা ও অপরাধ চলছে।

এ টুইট দেখে নিজেকে শান্ত রাখতে পারেননি ভারতের সাবেক ওপেনার গম্ভীর। তিনি বর্তমানে বিজেপির সাংসদ। টুইটারে লিখেছেন- বিষয়টি সামনে আনার জন্য আফ্রিদির প্রশংসা করা উচিত। সে শুধু একটা বিষয় বলতে ভুলে গেছে, যা ঘটছে সবই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। চিন্তা করার কিছু নেই। সেটিও আমরা ঠিক করে দেব।

অতীতেও কাশ্মীর নিয়ে মুখ খোলেন আফ্রিদি। লন্ডনের এক স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের সামনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, কাশ্মীরে শান্তি ফিরুক। এটি পাকিস্তানের চাই না। ভারতকেও দেয়ার প্রয়োজন নেই। ভূস্বর্গকে স্বাধীন করে দেয়া হোক। সেখানে মৃত্যুর মিছিল বন্ধ হোক। মানবতার জয় হোক।

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত