ভিলেন সেই চোট, রিটায়ার্ড হার্ট জোকার
jugantor
ভিলেন সেই চোট, রিটায়ার্ড হার্ট জোকার

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৪৬:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউএস ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তিনি। কিন্তু এবার চতুর্থ রাউন্ড উতরাতে পারলেন না নোভাক জোকোভিচ। স্ট্যান ওয়ারিঙ্কার বিপক্ষে রুদ্ধে ম্যাচই শেষ করতে পারলেন না সার্বিয়ান টেনিস সেনসেশন।

চোটের জন্য আহত হয়ে (রিটায়ার্ড হার্ট) অবসর নিলেন জোকার। রোববারের ম্যাচে তার আহত হওয়ার ঘটনা মেনে নিতে পারেননি উপস্থিত দর্শকরাও।

বৃহস্পতিবার আর্জেন্টিনার খুরান ইননেসিয়ো লোনডেরোর বিপক্ষে ম্যাচের সময় কাঁধে চোট পান জোকোভিচ। ৬-৪, ৭-৬, ৬-১ সেটে তৃতীয় রাউন্ডে উঠলেও চোট নিয়ে বিব্রত ছিলেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে জানান, সার্ভ করার সময় এবং ব্যাকহ্যান্ড শটের সময় প্রচণ্ড অসুবিধা হচ্ছিল।

ক্যারিয়ারে আর কখনই কাঁধের চোটের জন্য এমন অস্বস্তিতে পড়তে হয়নি সার্বিয়ান তারকাকে। নিজেই বলেন, সন্দেহ ছিল ম্যাচ শেষ করতে পারব কিনা।

এদিন ৬-৪, ৭-৫, ২-১ এ এগিয়ে ছিলেন সুইস টেনিস ক্রেজ ওয়ারিঙ্কা। হঠাৎই কোর্টের এক পাশে বসে পড়েন জোকোভিচ। পরে বাধ্য হয়ে রিটায়ার্ড হার্ট ঘোষণা করতে হয় তাকে। ১৬ বারের গ্র্যান্ডস্ল্যাম চ্যাম্পিয়নের চোট নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী ওয়ারিঙ্কা বলেন, ওর অসুবিধা হচ্ছিল, সেটি বুঝতে পারছিলাম।

ভিলেন সেই চোট, রিটায়ার্ড হার্ট জোকার

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউএস ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তিনি। কিন্তু এবার চতুর্থ রাউন্ড উতরাতে পারলেন না নোভাক জোকোভিচ। স্ট্যান ওয়ারিঙ্কার বিপক্ষে রুদ্ধে ম্যাচই শেষ করতে পারলেন না সার্বিয়ান টেনিস সেনসেশন। 

চোটের জন্য আহত হয়ে (রিটায়ার্ড হার্ট) অবসর নিলেন জোকার। রোববারের ম্যাচে তার আহত হওয়ার ঘটনা মেনে নিতে পারেননি উপস্থিত দর্শকরাও।

বৃহস্পতিবার আর্জেন্টিনার খুরান ইননেসিয়ো লোনডেরোর বিপক্ষে ম্যাচের সময় কাঁধে চোট পান জোকোভিচ। ৬-৪, ৭-৬, ৬-১ সেটে তৃতীয় রাউন্ডে উঠলেও চোট নিয়ে বিব্রত ছিলেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে জানান, সার্ভ করার সময় এবং ব্যাকহ্যান্ড শটের সময় প্রচণ্ড অসুবিধা হচ্ছিল।

ক্যারিয়ারে আর কখনই কাঁধের চোটের জন্য এমন অস্বস্তিতে পড়তে হয়নি সার্বিয়ান তারকাকে। নিজেই বলেন, সন্দেহ ছিল ম্যাচ শেষ করতে পারব কিনা।

এদিন ৬-৪, ৭-৫, ২-১ এ এগিয়ে ছিলেন সুইস টেনিস ক্রেজ ওয়ারিঙ্কা। হঠাৎই কোর্টের এক পাশে বসে পড়েন জোকোভিচ। পরে বাধ্য হয়ে রিটায়ার্ড হার্ট ঘোষণা করতে হয় তাকে। ১৬ বারের গ্র্যান্ডস্ল্যাম চ্যাম্পিয়নের চোট নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী ওয়ারিঙ্কা বলেন, ওর অসুবিধা হচ্ছিল, সেটি বুঝতে পারছিলাম।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন