মৃত বাবার ভিডিও দেখে টকশোতে কাঁদলেন রোনাল্ডো

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:১৩ | অনলাইন সংস্করণ

রোনাল্ডো

তারকাখ্যাতি পাওয়ার আগেই বাবাকে হারান ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। প্রচুর মদ্যপান করতেন সিআর সেভেনের বাবা হোসে দিনিস আভেইরো। একপর্যায়ে যকৃতের জটিল রোগে মৃত্যু হয় তার। ফলে ছেলের সাফল্য দেখে যেতে পারেননি হোসে। সেই বাবার কথা মনে করে কাঁদলেন সিআর সেভেন।

সম্প্রতি ব্রিটিশ চ্যানেল আইটিভির এক টকশোতে আসেন রোনাল্ডো। সেটি সঞ্চালনা করেন বিখ্যাত ব্রিটিশ টিভি সেলেব্রেটি পিয়ার্স মরগান। সেই শো'তে উঠে আসে পর্তুগিজ তারকার জীবনের উত্থান-পতন।এক মুহূর্তে দেখানো হয় তার মৃত বাবার ভিডিও।সেটি দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন রোনাল্ডো।

ভিডিওটা ইউরো-২০০৪ এর ঠিক আগের সময়ের।সেই টুর্নামেন্টের অন্যতম উঠতি তারকা ছিলেন রোনাল্ডো। সেবারই ধারণা করা হয়,ইউসেবিও ও লুইস ফিগোদের পর আরেকজন সুপারস্টার পেতে যাচ্ছে পর্তুগাল।

যে কারণে ওই টুর্নামেন্টের আগে রোনাল্ডোর বাবার একটা সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। নিজের বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে সেই সাক্ষাৎকার দেন হোসে দিনিস। ছেলের প্রতিভায় ভীষণ মুগ্ধ এবং অর্জনে গর্বিত ছিলেন তিনি।ছোট্ট সেই সাক্ষাৎকারে সব ফুটে ওঠে।এর পরের বছরেই মারা যান হোসে দিনিস।

ভিডিওটা এর আগে কখনই দেখেননি রোনাল্ডো। হয়তো সেটি দেখার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতও ছিলেন না। স্বভাবতই টক শোতে তা দেখে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। নিজেকে আর আটকে রাখতে পারেননি পেশাদারি খোলসে। কান্নায় ফেটে পড়েন পর্তুগিজ যুবরাজ।

পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার বলেন,আমি ভিডিওটি কখনো দেখিনি। অবিশ্বাস্য লাগছে আমার কাছে।

টক শোটি এক অর্থে বুমেরাং হয়েছে রোনাল্ডোর জন্য। আবেগআপ্লুত হয়ে তিনি বলেন, আমি ভেবেছিলাম অনুষ্ঠানটি অনেক মজার হবে। সেখানে প্রচুর আড্ডা, হাসাহাসি হবে।আমি এখানে এসে কাঁদতে চাইনি। কিন্তু বাবার ভিডিওটা এর আগে কখনো দেখিনি। তাই আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারিনি। এটি আমাকে সংগ্রহ করতে হবে। আমার পরিবারকে দেখাতে হবে। আমি জানি না, ফুটেজটা কোত্থেকে খুঁজে পেয়েছেন তারা।

বাবার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে জুভেন্টাস তারকা বলেন, বাবা কি জিনিস বুঝতাম না। তাকে শতভাগ বুঝে উঠতে পারতাম না। বাবা অনেক ড্রিংকস করতেন। তার সঙ্গে কখনও আমার স্বাভাবিক কথাবার্তা হয়নি। কষ্ট লাগে, দুঃখ হয়, উনার কিছুই দেখে যাওয়ায় সৌভাগ্য হয়নি। আমার সাফল্য, আমার ভাই-বোন, আমার চার ছেলে মেয়ে, এত এত ট্রফি। কিছুই দেখে যেতে পারলেন না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×