নারী ক্রিকেটে পরাজয়ের কারণ নয়, জয়ের শক্তি: সানিয়া মির্জা

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৬ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

সানিয়া দম্পতি ও আনুশকা দম্পতি।
সানিয়া দম্পতি ও আনুশকা দম্পতি। ছবি সংগৃহীত

বেশ কয়েকবার বিরাট কোহলির মাঠে খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য আনুশকা শর্মাকে বিরাটের ভক্তরা নেতিবাচক মন্তব্যে ভাসিয়ে দিয়েছেন। এবার এর তীব্র প্রতিবাদ জানালেন ভারতের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। তিনি সরাসরি নিলেন আনুশকা শর্মার পক্ষ।

তিনি বললেন, বিরাট কোহলির শূন্য করার পেছনে আনুশকার ভূমিকা কি করে থাকে! সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভারতের এ টেনিস তারকা নিজের মতামত জানান ।

সাক্ষাৎকারে সানিয়া মির্জা বলেন, ভারত বা পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের সঙ্গে তাদের জীবনসঙ্গীর ভ্রমণকে নিরুৎসাহিত করা হয়। এ ছাড়া অনেক বিধিনিষেধ বেঁধে দেয়া হয়। এটা আমার কাছে অপ্রয়োজনীয় মনে হয়।

গত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের পারফরম্যান্সে অসন্তুষ্ট হয়ে অনেকে আমাকে দোষারোপ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোনো একটা দলের খারাপ পাফরম্যান্সের জন্য আমি দায়ী হব কেন?

এর পর তিনি আনুশকা শর্মার কথা উল্লেখ করে বলেন, বিরাট শূন্য করলে তাতে কেন আনুশকাকে অভিযুক্ত করা হয়? মাঠে তো বিরাট, আনুশকা নয়! খেলার মাঠে জীবনসঙ্গীর উপস্থিতি মনোবল বাড়ায় বলে মনে করেন সানিয়া।

তিনি বলেন, খেলা শেষে শূন্যঘরে ফেরার থেকে কারও কাছে ফেরা বেশি আনন্দদায়ক। নারী কখনই দুর্বলতা নয়- শক্তি।

তিনি আরও বলেন, আজও নারীকেই সবকিছুর জন্য কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়। এটি মোটেও কাম্য নয়। নারীকে পরাজয়ের কারণ হিসেবে বিবেচেনা করা হয়। মনে রাখতে হবে, নারী জয়ের শক্তি, পরাজয়ের কারণ নয়।

উল্লেখ্য, এর আগে বেশ কয়েকবার বিরাট কোহলির মাঠে খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য আনুশকাকে বিরাটের ভক্তরা নেতিবাচক মন্তব্যে ভাসিয়ে দিয়েছেন। আর সানিয়াকে বিশ্বকাপের সময় কটু মন্তব্য শুনতে হয় পাকিস্তানি তারকা ভিনা মালিকের কাছ থেকে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×