কোহলিও জানে না কোথায় থামবে, বলছেন সৌরভ

  স্পোর্টস ডেস্ক ১২ অক্টোবর ২০১৯, ১০:১৩:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে অপরাজিত ২৫৪ রান করে এ ফরম্যাটে ভারতীয় রান সংগ্রাহকদের তালিকায় সপ্তম স্থানে উঠে এসেছেন বিরাট কোহলি। সাবেক ক্রিকেটার দিলীপ ভেঙ্গসরকরকে ছাপিয়ে তিনি নিঃশ্বাস ফেলছেন কিংবদন্তি সৌরভ গাঙ্গুলির কাঁধে। সাবেক অধিনায়কের চেয়ে মাত্র ১৫৮ রান দূরে ২২ গজের কিং।

এভাবে একে একে আরও রেকর্ড ভাঙবেন কোহলি। একদিন হয়তো কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের রেকর্ডও স্পর্শ করবেন। তবে এখনই সেই ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতে চান না সৌরভ। তিনি মনে করেন, শুধু লিটল মাস্টারের রেকর্ডই নয়। বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের ছাপিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা রয়েছে বিরাটের।

শুক্রবার এক সাক্ষাৎকারে সৌরভ বলেন,বিরাট কোথায় থামবে, তা ঈশ্বরই বলতে পারেন। সে নিজেও জানে না কোথায় গিয়ে থামবে এবং শেষ করবে।

তাকে ছাপিয়ে যেতে কোহলির বেশি সময় লাগবে না। সেটা মানছেনও বাংলার দাদা। সেই সঙ্গেই বললেন,শুধু আমার রেকর্ড কেন। বিরাট ৭০০০ বা ১০,০০০ রানে তৃপ্ত হবে না। সেটা তার ছন্দ দেখেই বোঝা যায়। বিশ্বের অধিকাংশ ব্যাটসম্যানের রেকর্ড ভাঙার ক্ষমতা ওর রয়েছে।

বৃহস্পতিবার তৃতীয় সেশন ও শুক্রবারের প্রথম সেশনে কাগিসো রাবাদা ও ভারনন ফিল্যান্ডারের ভয়ংকর স্পেলের বিপক্ষে ঢাল হয়ে দাঁড়ান বিরাট। পুনের পিচে শুরু থেকেই সাহায্য পান প্রোটিয়া পেসাররা। সেখানে রাবাদার আউটসুইংয়ের বিপক্ষে ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হয় বিরাটকে। বিধ্বংসী পেসার জানতেন, আউটসুইংয়ের বিপক্ষে ভারতীয় অধিনায়ক আত্মবিশ্বাসী নন। তরুণ পেসার তাই চেষ্টা করেন বিরাটের শরীরের ভেতর থেকে বাইরে সুইং করিয়ে তার ব্যাটের স্পর্শ করাতে।

কিন্তু কোহলিকে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হন রাবাদা। তাকে সামলানোর সঠিক উপায় কি ক্রিকেটবিশ্বকে দেখিয়ে দিলেন ভারতীয় ব্যাটিং মায়েস্ত্রো? সৌরভের জবাব, এর চেয়ে কঠিন পিচে আরও ভয়ংকর পেসারদের তাকে সামলাতে দেখেছি। বিরাটের এ ইনিংস আমার কাছে নিতান্তই একটি ২০০ রানের মাইলফলক। ব্যাটসম্যান হিসেবে এটি তাকে আরও প্রতিষ্ঠিত করবে। কিংবদন্তিদের মঞ্চের দিকে একধাপ ওকে এগিয়ে দেবে।

তিনি আরও বলেন, এর চেয়ে আরও শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে কোহলিকে মোকাবেলা করতে দেখেছি। আশা করি, ভবিষ্যতেও দেখতে পাব।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত