আফিফের ওভারে ছয়টি ছক্কা হাঁকানোর পরিকল্পনা ছিল স্রেয়াশের

  স্পোর্টস ডেস্ক ১১ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

আফিফ হোসেন -স্রেয়াশ আয়ার। ফাইল ছবি
আফিফ হোসেনের ওভারে টানা তিন ছক্ক হাঁকান ভারতীয় এই তরুণ ব্যাটসম্যান স্রেয়াশ আয়ার। ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় তরুণ তারকা ব্যাটসম্যান স্রেয়াশ আয়ার বলেছেন, টানা তিন বলে ছক্কা হাঁকালে যে কোনো ব্যাটসম্যানই চাইবে ছয় বলে ছয়টি ছক্কা হাঁকাতে। আমারও তেমনই পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু চতুর্থ বলে আফিফ ইয়র্কার দেয়ার পর আমি সেই পরিকল্পনা থেকে সরে আসি।

রোববার ভারতের নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের পর এসব কথা বলেন ৩৩ বলে ৬২ রান করা স্রেয়াশ।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ভারতীয় ইনিংসের ১৫তম ওভারে বোলিংয়ে এসেই স্রেয়াশ আয়ারের ব্যাটিং ঝড়ের কবলে পড়েন আফিফ হোসেন। বাংলাদেশ দলের এ তরুণ অফ স্পিনারকে টানা তিন বলে ছক্কা হাঁকান স্রেয়াশ আয়ার।

পরপর ছক্কা খেয়ে চতুর্থ বল ইয়র্কার দেন আফিফ। সেই বলে কোনো রান নিতে পারেননি স্রেয়াশ। পঞ্চম বলে সিঙ্গেল রান নিয়ে ফিফটি পূর্ন করেন ভারতীয় এ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। তার ব্যাটিং তাণ্ডবে ১৭৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ভারত। জবাবে ১৪৪ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ।

অথচ এ স্রেয়াশ আয়ারের শূন্য রানেই সাজঘরে ফেরার কথা ছিল। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় বলেই ক্যাচ তুলে দেন তিনি। কিন্তু স্কয়ার লেগে ফিল্ডিং করা অনভিজ্ঞ আমিনুল ক্যাচটি তালুবন্দি করতে পারেননি। যে কারণে দলীয় ৩৭ রানে শফিউল ইসলামের বলে নতুন লাইফ পান স্রেয়াশ। লাইফ পেয়ে তার সদ্ব্যবহার করেন তিনি।

দিল্লিতে অনুষ্ঠিত প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৭ উইকেটের দাপুটে জয় পাওয়া বাংলাদেশ এরপর রাজকোট ও নাগপুরে টানা দুই খেলায় পরাজিত হয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারে টাইগাররা।

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ভারত সফর-২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×