যা খুশি আমাকে বলুন, পরিবারকে টানবেন না: রোহিত শর্মা

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৭ জানুয়ারি ২০২০, ১২:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

রোহিত

ভারতীয় জাতীয় দলের ওপেনার রোহিত শর্মা ক্রিকেটারদের পরিবার নিয়ে অন্যরা কথা বলায় বিরক্ত। সাফ বলে দিয়েছেন, ‘আমাকে নিয়ে যা খুশি বলুন, পরিবারকে টানবেন না।

ক্রিকেটাররা ফর্মে না থাকলে তাদের ব্যক্তিগত জীবন কিংবা পরিবার নিয়ে সমালোচনা করাটা সম্প্রতি একশ্রেণীর সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আর সেই ক্রিকেটার যদি স্ত্রীর সঙ্গে বেশি ছবি পোস্ট করেন, তা হলে তো কথাই নেই। সমালোচনার মাত্রা বাড়ে বহুগুণ। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মাকে হরহামেশা এই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়।

বিষয়টি ভীষণ কষ্ট দেয় রোহিতকে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, পরিবার ক্রিকেটারদের কতটা শক্তি জোগায়, সেটা কোহলিও ভালো করে জানেন। আমি এখন সম্পূর্ণ এক নতুন মানুষ। সেটার কৃতিত্ব আমার পরিবারের। আমার স্ত্রী রীতিকা ও মেয়ে সামাইরার এতে বিশাল অবদান রয়েছে। তারাই আমার পৃথিবী। তাই আমাকে নিয়ে কে কী বলল, সেসবে আর পাত্তা দিই না। রিশভ পন্থদেরও আমি এ কথাই বলি। নিজের চারপাশে দেয়াল রাখ। এর বাইরে কে কী বলছে, কানে না নিয়ে নিজের কাজটা সঠিকভাবে করে যাও।

২০১৯ সালটা দারুণ কেটেছে রোহিত শর্মার। টিম ইন্ডিয়ার হয়ে টেস্টেও কথা বলেছে তার ব্যাট। এখন বিশ্রামে আছেন। শ্রীলংকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলছেন না তিনি। সময় কাটাচ্ছেন পরিবারের সঙ্গে। দীর্ঘদিন পর টেস্ট ক্রিকেটে ফিরলেও সেটা নিয়ে খুব বেশি ভাবছেন, তাও নয়।

রোহিতের কথায়, আগে আমি টেস্টের সাফল্য নিয়ে খুব বেশি ভাবতাম। আউট হয়ে গেলে মনে করতাম, ইস, কেন এই শটটা খেললাম! প্রত্যেক ইনিংসের পর আমি ভিডিও অ্যানালিস্টের কাছে যেতাম, আর দেখতাম কোথায় কী ভুল হল। সত্যি বলতে কী, এটা নিয়ে ডুবে থাকতাম। কিন্তু পরে বুঝলাম, এটা ভুল; সঠিক পদ্ধতি নয়। এভাবে খেলাটা উপভোগ করা যায় না। তাই, ২০১৮-১৯ মৌসুম শুরুর আগে আমি নিজেকে বলেছিলাম, বস, যাই হোক না কেন, আমি সারাদিন টেস্টে আমার টেকনিক নিয়ে ভাবব না। হয়তো সেজন্যই কিছুটা সফল হয়েছি। এখন ইনিংসের পর আমি সতীর্থদের সঙ্গে মজা করি। যেকোনও ব্যাপারে, নেতিবাচক চিন্তা-ভাবনা মনে ঠাঁয় দিতে নেই।

অবশ্য হিটম্যান এটাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন, সুযোগ এলে সেটা গ্রহণ করতেই হবে। তিনি বলেন, আমি কিন্তু এখন আর সেই ২২-২৩ বছরের ছেলে নই। যে সুযোগ পাওয়ার সময় পাবে। এখন আমার কাছে যে সুযোগ আসবে, সেটাকেই কাজে লাগাতে হবে।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×