২ বিভাগেই শতভাগ দেয়ার প্রত্যয় সৌম্যর কণ্ঠে

প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:০১ | অনলাইন সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে জাতীয় দলে যাত্রা শুরু করেন সৌম্য সরকার। তবে ক্রমেই তার পরিচিতি পাল্টে যাচ্ছে। তাকে এখন ভাবা হচ্ছে পুরোদস্তুর অলরাউন্ডার। এ হিসেবেই পাকিস্তান সফরে গেছেন তিনি।

সৌম্যকে পাক ব্রিগেডের বিপক্ষে মিডলঅর্ডারে খেলাতে পারে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। মিডিয়াম পেসার হিসেবে তাকে বোলিং করাতে পারে দল। ব্যাটসম্যান-বোলার হিসেবেই মূলত ওকে বিবেচনায় রেখেছেন নির্বাচকরা। ২৬ বছর বয়সী ক্রিকেটারও ব্যাটিং-বোলিং, দুই বিভাগেই পাকিস্তানের বিপক্ষে শতভাগ দিতে চান।

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিবিপিএল) অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্স করেছেন সৌম্য। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের হয়ে ব্যাট হাতে ১২ ম্যাচে ২ হাফসেঞ্চুরিতে ৩৩১ রান করেন তিনি।  বোলিংয়ে হাত ঘুরিয়ে ৮.৫৭ ইকোনমিতে শিকার করেন ১২ উইকেট।

পাকিস্তানের বিপক্ষেও এমন পারফরম করতে চান সৌম্য। বুধবার পাকিস্তানের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, অবশ্যই দুই ডিপার্টমেন্টে শতভাগ দেয়ার চেষ্টা করব। যেভাবেই সুযোগ পাই, যেখানেই সুযোগ আসে; চেষ্টা করব সর্বোচ্চটা উজাড় করে দেয়ার।

দল হিসেবেও ভালো করার প্রত্যাশা ঝরেছে বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের কণ্ঠে। তিনি বলেন, আমাদের দলটি অভিজ্ঞ ও তারুণ্যনির্ভর। যথেষ্ট শক্তিশালী ও ভারসাম্যপূর্ণ দল। আমরা যারা যাচ্ছি, সবাই এবারের বিপিএলে ভালো করেছি। প্রত্যেকে এ পারফরম্যান্সটা প্রদর্শন করতে পারলে ফল ভালো আসবে।

নিরাপত্তা অজুহাতে পারিবারিক আপত্তির কারণে পাকিস্তান সফরে যাননি না বাংলাদেশের সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। নিষেধাজ্ঞার কারণে দলে নেই সাকিব আল হাসান। দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ছাড়াই পাকিস্তান গেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। স্বভাবতই এ পরিস্থিতিতে দায়িত্ব নিয়ে খেলার বিকল্প নেই। সেটিও ভালো করে জানেন ও মানেন সৌম্য।

তিনি বলেন, কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার দলে নেই। থাকলে অবশ্যই ভালো হতো। তাদের মিস করব। এমন অবস্থায় অবশ্যই দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। চেষ্টা করব সেভাবেই খেলার।