শেষ কবে টিভিতে দেশের খেলা দেখেছি মনে নেই: মুশফিক
jugantor
শেষ কবে টিভিতে দেশের খেলা দেখেছি মনে নেই: মুশফিক

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:৪১:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মুশফিকুর রহিম
মুশফিকুর রহিম। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া

নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফরে যাননি মুশফিকুর রহিম। তার মতো একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ছাড়াই লাহোরে লড়াই করছে বাংলাদেশ দল। 

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে মুশফিক লেখেন, ‘শেষবার কবে দেশের খেলা টেলিভিশনে দেখেছি তা মনে নেই। দলের সঙ্গে না গেলেও সবসময় সতীর্থদের পাশে আছি। জয় নিয়ে দেশে ফিরে আসবে এই কামনা করি। সবাইকে জুম্মা মোবারক।’

জাতীয় দলের এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের এমন স্ট্যাটাসকে ভালোভাবে নেননি তার ভক্ত-সমর্থকরা। বেশিরভাগ বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীই তার টাইমলাইনের কমেন্ট বক্সে এসে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

রুহেল আহমেদ নামে একজন লেখেন, ‘আপনার উচিত ছিল পাকিস্তান সফরে যাওয়া, সাকিব নাই, আপনি নেই। মিডিল অর্ডারে দায়িত্ব নিয়ে খেলার মত আমাদের দেশে এখনও তেমন কোন খেলোয়াড় তৈরি হয়নি।’

সোহেল মালিক নামে একজন লেখেন, ‘টিভি দেখার সময় সাবধানে দেখিয়েন নাকি নিরাপত্তা কর্মী লাগবে!’

আবুল কালাম আজাদ নামে একজন লেখেন, ‘আপনি খেলা না দেখলে জাতি আরও আনন্দিত হবে। আশা করি প্রিয় মাতৃভূমির জার্সিটা আর আপনার গায়ে যেন না ওঠে।’

হাবিব নামে একজন লেখেন, ‘আসলে আপনি একটা কাপুরুষ, যেখানে পুরো টিম পাকিস্তান সফরে গেল সেখানে আপনার সমস্যা। এটা কি মেনে নেয়ার মতো!’ 

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই পাকিস্তান সফরে যেতে সাহস পাচ্ছে না বিশ্বের টেস্ট খেলুড়ে কোনো দেশ। যদিও সম্প্রতি শ্রীলংকাকে নিয়ে ১০ বছর পর ঘরের মাঠে টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করেছে পাকিস্তান।

এবার বাংলাদেশকে নিয়ে সিরিজ আয়োজন করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। টাইগাররা চলতি সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে দেশে ফিরে আসবে। এরপর দুইবার সফরে গিয়ে দুটি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে। 

শেষ কবে টিভিতে দেশের খেলা দেখেছি মনে নেই: মুশফিক

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৪ জানুয়ারি ২০২০, ০৫:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মুশফিকুর রহিম
মুশফিকুর রহিম। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া

নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফরে যাননি মুশফিকুর রহিম। তার মতো একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ছাড়াই লাহোরে লড়াই করছে বাংলাদেশ দল।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে মুশফিক লেখেন, ‘শেষবার কবে দেশের খেলা টেলিভিশনে দেখেছি তা মনে নেই। দলের সঙ্গে না গেলেও সবসময় সতীর্থদের পাশে আছি। জয় নিয়ে দেশে ফিরে আসবে এই কামনা করি। সবাইকে জুম্মা মোবারক।’

জাতীয় দলের এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের এমন স্ট্যাটাসকে ভালোভাবে নেননি তার ভক্ত-সমর্থকরা। বেশিরভাগ বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীই তার টাইমলাইনের কমেন্ট বক্সে এসে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

রুহেল আহমেদ নামে একজন লেখেন, ‘আপনার উচিত ছিল পাকিস্তান সফরে যাওয়া, সাকিব নাই, আপনি নেই। মিডিল অর্ডারে দায়িত্ব নিয়ে খেলার মত আমাদের দেশে এখনও তেমন কোন খেলোয়াড় তৈরি হয়নি।’

সোহেল মালিক নামে একজন লেখেন, ‘টিভি দেখার সময় সাবধানে দেখিয়েন নাকি নিরাপত্তা কর্মী লাগবে!’

আবুল কালাম আজাদ নামে একজন লেখেন, ‘আপনি খেলা না দেখলে জাতি আরও আনন্দিত হবে। আশা করি প্রিয় মাতৃভূমির জার্সিটা আর আপনার গায়ে যেন না ওঠে।’

হাবিব নামে একজন লেখেন, ‘আসলে আপনি একটা কাপুরুষ, যেখানে পুরো টিম পাকিস্তান সফরে গেল সেখানে আপনার সমস্যা। এটা কি মেনে নেয়ার মতো!’

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই পাকিস্তান সফরে যেতে সাহস পাচ্ছে না বিশ্বের টেস্ট খেলুড়ে কোনো দেশ। যদিও সম্প্রতি শ্রীলংকাকে নিয়ে ১০ বছর পর ঘরের মাঠে টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করেছে পাকিস্তান।

এবার বাংলাদেশকে নিয়ে সিরিজ আয়োজন করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। টাইগাররা চলতি সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে দেশে ফিরে আসবে। এরপর দুইবার সফরে গিয়ে দুটি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর-২০২০