পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ইমরুলকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা
jugantor
পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ইমরুলকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১২:০০:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথম দফায় পাকিস্তানে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে দেশে ফিরে এসেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছেন টাইগাররা।

এবার দ্বিতীয় ধাপের পালা। এ পর্বে রাওয়ালপিন্ডিতে ৭-১১ ফেব্রুয়ারি একটি টেস্ট খেলবেন তারা। তাতে ভালো করার স্বপ্ন দেখছেন মুমিনুল বাহিনী। কিন্তু এর আগে ধেয়ে আসছে একের পর এক দুঃসংবাদ। সেই টেস্টে অনিশ্চিত দলের ওপেনার সাদমান ইসলাম।

এবার জানা গেল আরেক ওপেনার ইমরুল কায়েসকে নিয়েও শঙ্কা রয়েছে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের পর থেকে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে ভুগছেন তিনি। তার ইনজুরির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

আসন্ন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের হয়ে খেলবেন ইমরুল। এবারও তাকে ধরে রেখেছে দলটি। ৩১ জানুয়ারি আসর শুরু হবে। তবে প্রথম ম্যাচে বাঁহাতি ওপেনারকে পাচ্ছে না ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। লাল বলের এ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় রাউন্ড থেকে মাঠে নামতে পারেন তিনি।

দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ইনজুরি থেকে দ্রুত সেরে উঠছেন ইমরুল। পাকিস্তান সফরের আগে আমরা তাকে বিশ্রামের পরামর্শ দিয়েছি। বিসিএলের প্রথম রাউন্ডে ওকে না খেলার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। কারণ খেললে আবার ইনজুরিতে পড়তে পারেন উনি।

তিনি বলেন, কয়েক দিন পর আমরা ইমরুলের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করব। এর পরই বুঝতে পারব, পাকিস্তান সফরে উনি যেতে পারবেন কিনা। এমন ইনজুরি নিয়ে টেস্ট খেলা যায় না। সংক্ষিপ্ত সংস্করণে খেললেও ঝুঁকি থাকে। তাই সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ইমরুলকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১২:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথম দফায় পাকিস্তানে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে দেশে ফিরে এসেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছেন টাইগাররা। 

এবার দ্বিতীয় ধাপের পালা। এ পর্বে রাওয়ালপিন্ডিতে ৭-১১ ফেব্রুয়ারি একটি টেস্ট খেলবেন তারা। তাতে ভালো করার স্বপ্ন দেখছেন মুমিনুল বাহিনী। কিন্তু এর আগে ধেয়ে আসছে একের পর এক দুঃসংবাদ। সেই টেস্টে অনিশ্চিত দলের ওপেনার সাদমান ইসলাম।

এবার জানা গেল আরেক ওপেনার ইমরুল কায়েসকে নিয়েও শঙ্কা রয়েছে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের পর থেকে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে ভুগছেন তিনি। তার ইনজুরির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

আসন্ন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের হয়ে খেলবেন ইমরুল। এবারও তাকে ধরে রেখেছে দলটি। ৩১ জানুয়ারি আসর শুরু হবে। তবে প্রথম ম্যাচে বাঁহাতি ওপেনারকে পাচ্ছে না ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। লাল বলের এ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় রাউন্ড থেকে মাঠে নামতে পারেন তিনি।

দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ইনজুরি থেকে দ্রুত সেরে উঠছেন ইমরুল। পাকিস্তান সফরের আগে আমরা তাকে বিশ্রামের পরামর্শ দিয়েছি। বিসিএলের প্রথম রাউন্ডে ওকে না খেলার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। কারণ খেললে আবার ইনজুরিতে পড়তে পারেন উনি।

তিনি বলেন, কয়েক দিন পর আমরা ইমরুলের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করব। এর পরই বুঝতে পারব, পাকিস্তান সফরে উনি যেতে পারবেন কিনা। এমন ইনজুরি নিয়ে টেস্ট খেলা যায় না। সংক্ষিপ্ত সংস্করণে খেললেও ঝুঁকি থাকে। তাই সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর-২০২০