শোয়েবের চোখে বিশ্বের সেরা ফাস্ট বোলার শামি

  স্পোর্টস ডেস্ক ৩১ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:২৭ | অনলাইন সংস্করণ

শোয়েব

জয়ের জন্য শেষ ওভারে নিউজিল্যান্ডের দরকার ছিল মাত্র ৯ রান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এটি তোলা মামুলি ব্যাপার। অধিকন্তু ক্রিজে ছিলেন দুই সেট ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলর। সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানও তারা। অথচ দুজনকেই ফিরিয়ে ম্যাচ সুপারে ওভারে নিয়ে যান ভারতের পেসার মোহাম্মদ শামি। যেখানে নাটকীয় জয় তুলে নেয় কোহলি বাহিনী।

প্রচণ্ড স্নায়ুচাপের মধ্যে ২০তম ওভার করতে আসেন শামি। প্রথম বলেই ছক্কা খেয়ে বসেন তিনি। এর পরই দুর্দান্ত কামব্যাক করেন। দ্বিতীয় বলে ফিরিয়ে দেন ৯৫ রান করা উইলিয়ামসনকে। তৃতীয় ও চতুর্থ বল ডট দেন। পঞ্চম বলে বাই রান (১) দেন। আর ষষ্ঠ বলে টেইলরের স্টাম্প উড়িয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন ডানহাতি পেসার।

শামির উচ্চতা গড়পড়তা। ঝুলিতে প্রকৃতি প্রদত্ত কোনো অস্ত্র নেই। শুধু পরিশ্রম ও অধ্যবসায়ের ফলে বলে গতিময় ইয়র্কার, সুইং, বাউন্সার আদায় করে নিচ্ছেন। দলকে একের পর এক ঐতিহাসিক ক্ষণের উপলক্ষ এনে দিচ্ছেন। এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে তিনি বলেন, যখন টেইলর শামিকে প্রথম বলেই ছক্কা মারল, তখন আমি ধরেই নিয়েছিলাম ম্যাচ শেষ। কিন্তু না! অভিজ্ঞ বোলার পরে স্বরূপে ফিরে আসে। অভিজ্ঞতার ঝুলি থেকে সব নিংড়ে দেয়। সে বুঝে ফেলেছিল, উইকেটে শিশির আছে। সেটি কাজে লাগিয়ে বাড়তি গতি আদায় করে নেয় ও। সঙ্গে বলকে স্কিড করায়। ফলে তার বল কিউই বোলারদের পক্ষে খেলা সম্ভব হয়নি।

সব কৃতিত্ব শামিকে দিচ্ছেন শোয়েব। বিশেষত তার বোলিং বৈচিত্র্য এবং ব্যাটসম্যানদের পড়ে ফেলার দক্ষতার জন্য। তাই তাকে ভারতের তথা বিশ্বের সেরা বোলার বলে আখ্যায়িত করেছেন তিনি।

রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেন, শামি খুব চালাক বোলার। সে ভারতের তথা বিশ্বেরই সেরা বোলার। যে পরিস্থিতিতেই তার হাতে বল তুলে দেয়া হোক না কেন, চমৎকার করে ও। সেটি বিশ্বকাপের মতো বিশ্বমঞ্চ হোক কিংবা নিউজিল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। শামি খুবই স্মার্ট বোলার। খেয়াল করলে দেখা যায়, ইয়র্কার কাজ না করলে দ্রুত বোলিংয়ে পরিবর্তন আনে সে। সুইং, বাউন্সার দেয়া শুরু করে নতুবা লাইন-লেন্থ বজায় রাখে।

গেল বুধবার হ্যামিলটনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সুপার ওভারে নাটকীয় জয় তুলে নেয় ভারত। তবে সেটি ততটা সহজ ছিল না। হিটম্যান রোহিত শর্মার টানা দুই ছয়ে ঘাম ঝরা জয় পায় তারা।

কারণ শুরুতে অনেক রান দিয়ে ফেলেন জাসপ্রিত বুমরাহ। ভারতের হয়ে সুপার ওভারটি করেন তিনিই। তার ৬ বলে ১৭ রান তোলেন নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন ও মার্টিন গাপটিল।

পরে টিম সাউদির সুপার ওভারের শেষ দুই বলে টানা ছক্কা মেরে ভারতকে অনন্য জয় উপহার দেন রোহিত। এ নিয়ে কিউইদের মাঠে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতল টিম ইন্ডিয়া।

উল্লেখ্য, ৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টির সিরিজের চতুর্থটিতে ওয়েলিংটনে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায় মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ড-ভারত। আগের ৩ ম্যাচের সবকটিতেই জিতে ইতিমধ্যে সিরিজ পকেটে পুরেছে ভারত।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫৬ ২৬
বিশ্ব ৯,৮১,৪২৫২,০৬,২৭২৫০,২৫৫
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×