সালাহর অলিম্পিকে খেলা নির্ভর করছে কার ওপর?

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:৪১:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

আসন্ন টোকিও অলিম্পিকের জন্য ৫০ সদস্যের প্রাথমিক দল গঠন করেছে মিসর। তাতে রয়েছেন মোহামেদ সালাহ বলে গুঞ্জন ছড়িয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্নটি উঠেছে। আগামী মৌসুমে লিভারপুলের হয়ে খেলবেন তো তিনি? যদিও বিষয়টি তার ও ক্লাবের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন মিসরীয় ফুটবল ফেডারেশন।

অলিম্পিকে কোনো দেশই জাতীয় দল পাঠায় না। মূলত সেখানে অনূর্ধ্ব ২৩ দল পাঠানো হয়। তবে তাতে অবশ্য ২৩ বছর ঊর্ধ্ব তিনজন ফুটবলার খেলতে পারেন। সেভাবেই সালাহকে দলে চাইছে মিসর।

তা হলে লিভারপুলের কী হবে? প্রাণভোমরাকে ছাড়াই কি পরের মৌসুমে মাঠে নামতে হবে? অবশ্য বিষয়টি খেলোয়াড় ও অলরেডদের ওপর নির্ভর করছে।

নিয়ম অনুযায়ী– কোপা, বিশ্বকাপ, ইউরো বা আফকন টুর্নামেন্টের জন্য খেলোয়াড় ছেড়ে দিতে বাধ্য থাকে ক্লাবগুলো। কিন্তু অলিম্পিকের জন্য কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।

তবে এতে খেলার বিষয়টি খেলোয়াড়ের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে। তারা চাইলে তাদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় ক্লাবগুলো। যেমন ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে মেসিকে ছেড়ে দেয় বার্সেলোনা। কারণ নিজ থেকে মাল্টি-স্পোর্টিং ইভেন্টে খেলতে চেয়েছিলেন তিনি।

সালাহর ক্ষেত্রেও তেমন হবে বলে আশা করছে মিসরের ফুটবল ফেডারেশন। তবে তার এজেন্ট রামি আব্বাস ইসা জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত সে ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

এবারের টোকিও অলিম্পিক শুরু হবে ২৪ জুলাই। চলবে ৯ আগস্ট পর্যন্ত। এ জন্য জুনের মধ্যে ১৮ সদস্যের দল ঘোষণা করতে হবে মিসরকে। আফ্রিকা দেশটির আশা, এর মধ্যেই সালাহকে রাজি করাতে পারবেন তারা।

তথ্যসূত্র: বিবিসি/অলিম্পিক চ্যানেল।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত