‘ক্ষেতে দৌড়াও, জোরে বল করতে পারবে’
jugantor
‘ক্ষেতে দৌড়াও, জোরে বল করতে পারবে’

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫:৪৭:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলের তরুণ পেসার আবু জায়েদ রাহীকে ক্ষেতে দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন ভারত সেরা পেসার মোহাম্মদ সামি।

গত নভেম্বরে তিনটি টি-টোয়েন্টিআর দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে ভারত সফরে যায় বাংলাদেশ দল। সেই সফরে পেস বোলিংয়ে গতি বাড়ানোর জন্য মোহাম্মদ সামির পরামর্শ চান রাহী। টাইগার পেসারকে বলে গতি বাড়ানোর জন্য ক্ষেতে দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন সামি।

এ ব্যাপারে আবু জায়েদ রাহী বুধবার মিরপুরে সাংবাদিকদেরবলেন, সামির সঙ্গে কথা হয়েছিল। সে আমাকে বলেছে ক্ষেত চেন? ক্ষেতে দৌড়াও। এতে শরীর ফিট হবে এবং জোরে বল করতে পারবে।

সবশেষ আফগানিস্তানের সঙ্গে ঘরের মাঠে যে দলটা খেলল, ভারত সফরে দেখা গেল বেশকিছু পরিবর্তন। এরপর পাকিস্তান সফরেও একই অবস্থা, দলে একাধিক পরিবর্তন। এখন আবার জিম্বাবুয়ে সিরিজে কয়েকজনকে বাদ দেয়া হয়েছে।

ক্রিকেটাররাএভাবে দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকলে ভালো করা কঠিন হয়ে যায়। এমনটিজানিয়ে আবু জায়েদ রাহী বলেন, দলে থাকব কি থাকব না, এ রকম দুশ্চিন্তা থাকলে পারফর্ম করা কঠিন হয়ে যায়।

টেস্ট খেলার লক্ষ্য নিয়ে আবু জায়েদ বলেন, সত্যি বলতে এখনও একশটেস্ট খেলার অনুভূতি আসেনি। অনেক টেস্ট খেলতে চাই। ৫০-৭৫ টেস্ট হলেই খুশি। এখন পর্যন্ত মাত্র আটটি টেস্ট খেলেছি।

‘ক্ষেতে দৌড়াও, জোরে বল করতে পারবে’

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ দলের তরুণ পেসার আবু জায়েদ রাহীকে ক্ষেতে দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন ভারত সেরা পেসার মোহাম্মদ সামি। 

গত নভেম্বরে তিনটি টি-টোয়েন্টি আর দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে ভারত সফরে যায় বাংলাদেশ দল। সেই সফরে পেস বোলিংয়ে গতি বাড়ানোর জন্য মোহাম্মদ সামির পরামর্শ চান রাহী। টাইগার পেসারকে বলে গতি বাড়ানোর জন্য ক্ষেতে দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন সামি। 

এ ব্যাপারে আবু জায়েদ রাহী বুধবার মিরপুরে সাংবাদিকদের বলেন, সামির সঙ্গে কথা হয়েছিল। সে আমাকে বলেছে ক্ষেত চেন? ক্ষেতে দৌড়াও। এতে শরীর ফিট হবে এবং জোরে বল করতে পারবে।

সবশেষ আফগানিস্তানের সঙ্গে ঘরের মাঠে যে দলটা খেলল, ভারত সফরে দেখা গেল বেশকিছু পরিবর্তন। এরপর পাকিস্তান সফরেও একই অবস্থা, দলে একাধিক পরিবর্তন। এখন আবার জিম্বাবুয়ে সিরিজে কয়েকজনকে বাদ দেয়া হয়েছে।

ক্রিকেটাররা এভাবে দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকলে ভালো করা কঠিন হয়ে যায়। এমনটি জানিয়ে আবু জায়েদ রাহী বলেন, দলে থাকব কি থাকব না, এ রকম দুশ্চিন্তা থাকলে পারফর্ম করা কঠিন হয়ে যায়।

টেস্ট খেলার লক্ষ্য নিয়ে আবু জায়েদ বলেন, সত্যি বলতে এখনও একশ টেস্ট খেলার অনুভূতি আসেনি। অনেক টেস্ট খেলতে চাই। ৫০-৭৫ টেস্ট হলেই খুশি। এখন পর্যন্ত মাত্র আটটি টেস্ট খেলেছি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : জিম্বাবুয়ের বাংলাদেশ সফর -২০২০

আরও খবর